পিঠের ইনজুরির কারণে বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট খেলতে না পারা তারকা ক্রিকেটার রশিদ খানকে আসন্ন তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের জন্য আফগানিস্তান দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আগামী ৫ থেকে ৮ জুলাই চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে দুই ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ।

অধিনায়ক হাশমতউল্লাহ শাহিদির নেতৃত্বাধীন ১৮ সদস্যের স্কোয়াডে মোহাম্মদ নবী ও মুজিব ইউর রহমানকে নিয়ে একটি শক্তিশালী লাইনআপ রয়েছে। এছাড়াও, সাম্প্রতিক বিগ ব্যাশ লিগে প্রভাব বিস্তার কারী অনক্যাপড লেগ স্পিনার ইজহারুল হক নাভিদকে ওয়ানডে স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সাম্প্রতিক শ্রীলঙ্কা সফরথেকে স্কোয়াডে থাকা অন্য নতুন মুখরা হলেন শহীদুল্লাহ, জিয়া-ইর-রেহমান, ওয়াফাদার মোমান্দ, মোহাম্মদ সেলিম এবং সৈয়দ শিরজাদ।

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড তাদের ভবিষ্যত ওয়ানডে এবং আসন্ন বিশ্বকাপের জন্য দশজন রিজার্ভ খেলোয়াড়ের নাম ঘোষণা করেছে। রিজার্ভ খেলোয়াড়দের মধ্যে রয়েছেন করিম জানাত, গুলবাদিন নাইব, নবীন-উল-হক এবং দারভিশ রাসুলি।

বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ৫৪৬ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে আফগানিস্তান। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের আগে সিলেটে দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ দল।

ওয়ানডে সিরিজের জন্য স্কোয়াড নিম্নরূপ:
হাশমতউল্লাহ শাহিদি (অধিনায়ক), রহমানউল্লাহ গুরবাজ, ইব্রাহিম জাদরান, রিয়াজ হাসান, রহমত শাহ, নাজিবুল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নবী, ইকরাম আলিখিল, রশিদ খান, আজমতউল্লাহ ওমরজাই, মুজিব ইউর রহমান, ফজলহাক ফারুকী, আবদুল রহমান, শহীদুল্লাহ, জিয়া-ইউর-রহমান, ওয়াফাদার মোমান্দ, মোহাম্মদ সেলিম, সৈয়দ শিরজাদ।

আফগানিস্তানের ব্যাকআপ রিজার্ভ:
করিম জানাত, জুবাইদ আকবরী, কায়েস আহমদ, ইহসানউল্লাহ জানাত, গুলবাদিন নাইব, শরাফুদ্দিন আশরাফ, নবীন-উল-হক, ফরিদ মালিক, দারভিশ রাসুলি, ইসহাক রহিমি।