পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) চীনের হাংঝুতে অনুষ্ঠেয় ১৯তম এশিয়ান গেমসের জন্য পাকিস্তান শাহিনদের স্কোয়াডের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে লাইনআপ ঘোষণা করেছে। দলকে নেতৃত্ব দেবেন ২০ বছর বয়সী অলরাউন্ডার কাসিম আকরাম। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টটি।

২০টি প্রথম-শ্রেণীর ম্যাচ এবং ৪০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার রেকর্ড থাকা কাসিম আকরাম এর আগে ২০২২ সালে আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়কত্ব করেছেন। ১৫ সদস্যের স্কোয়াডের মধ্যে আটজন ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক মঞ্চে পাকিস্তান পুরুষ দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

আন্তর্জাতিক ভাবে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের মধ্যে আমির জামাল (২টি টি-টোয়েন্টি), আরশাদ ইকবাল (১টি টি-টোয়েন্টি), আসিফ আলী (২১টি ওয়ানডে, ৫৫টি টি-টোয়েন্টি), হায়দার আলী (২টি ওয়ানডে, ৩৩টি টি-টোয়েন্টি), খুশদিল শাহ (১০টি ওয়ানডে, ২৪টি টি-টোয়েন্টি), মোহাম্মদ হাসনাইন (৯টি ওয়ানডে, ২৭টি টি-টোয়েন্টি), শাহনওয়াজ দাহানি (২টি ওয়ানডে, ১১টি টি-টোয়েন্টি) এবং উসমান কাদির (১টি ওয়ানডে)।

এছাড়া ১৫ সদস্যের স্কোয়াডের আট জন খেলোয়াড়- আমির জামাল, আরাফাত মিনহাস, আরশাদ ইকবাল, ওমাইর বিন ইউসুফ, কাসিম আকরাম, রোহাইল নাজির, শাহনওয়াজ দাহানি ও সুফিয়ান মুকিম। ২০২৩ সালের মে মাস থেকে জিম্বাবুয়ে, শ্রীলংকা ও অস্ট্রেলিয়া সফরে যাচ্ছে পাকিস্তান শাহিনস দল।

টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী আগামী ৩ ও ৪ অক্টোবর কোয়ার্টার ফাইনাল পর্ব থেকে অভিযান শুরু করবে শাহিনরা। এরপর ৬ অক্টোবর সেমি-ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে এবং ৭ অক্টোবর গ্র্যান্ড ফিনালে শেষ হবে। উল্লেখ্য, ব্রোঞ্জ পদকের জন্য প্রতিযোগিতাও অনুষ্ঠিত হবে ৭ অক্টোবর, শনিবার।

পাকিস্তান পুরুষ দল ২০১০ সালে চীনের গুয়াংজুতে অনুষ্ঠিত এশিয়ান গেমসে তাদের অভিষেক এবং একমাত্র উপস্থিতিতে ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করেছিল।

পাকিস্তান শাহীনস স্কোয়াড:

অধিনায়ক: কাসিম আকরাম
সহ-অধিনায়ক: ওমাইর বিন ইউসুফ
আমির জামাল, আরাফাত মিনহাস, আরশাদ ইকবাল, আসিফ আলী, হায়দার আলী, খুশদিল শাহ, মির্জা তাহির বেগ, মোহাম্মদ হাসনাইন, মোহাম্মদ আখলাক (উইকেটরক্ষক), রোহাইল নাজির, শাহনওয়াজ দাহানি, সুফিয়ান মুকিম, উসমান কাদির।

নন-ট্রাভেলিং রিজার্ভ: আব্দুল ওয়াহিদ বাঙ্গালজাই, মেহরান মুমতাজ, মোহাম্মদ ইমরান জুনিয়র, মোহাম্মদ ইরফান খান নিয়াজি, মুবাসির খান।

প্লেয়ার সাপোর্ট স্টাফ: শহীদ আসলাম (হেড কোচ-কাম-ম্যানেজার), উমর রশিদ (বোলিং কোচ), হানিফ মালিক (ব্যাটিং ও ফিল্ডিং কোচ), হাফিজ নাঈম উল রসুল (ফিজিওথেরাপিস্ট)।