পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান জাকা আশরাফ শ্রীলঙ্কার প্রতিকূল আবহাওয়ানিয়ে উদ্বেগের কারণে এশিয়া কাপ ২০২৩ এর ম্যাচগুলি পাকিস্তানে স্থানান্তরকরার পরামর্শ দিয়েছেন। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভাপতি জয় শাহের সঙ্গে আশরাফের সাম্প্রতিক কথোপকথনের পর এই প্রস্তাব আসে, যেখানে তারা শ্রীলঙ্কায় পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচগুলি নিয়ে আলোচনা করেছিলেন।

আশরাফের অবস্থান শ্রীলঙ্কার আবহাওয়ার ধরণগুলির অনিশ্চয়তার কারণে উদ্ভূত হয়েছে, যা তাকে আগামী দিনগুলিতে একটি বিস্তৃত আবহাওয়া মূল্যায়নের পক্ষে পরামর্শ দিতে উদ্বুদ্ধ করেছে। একটি কার্যকর সমাধান হিসাবে, তিনি এশিয়া কাপের ম্যাচগুলি পাকিস্তানে সরিয়ে নেওয়ার সম্ভাবনার প্রস্তাব করেছিলেন, বিশেষত উল্লেখ করেছিলেন যে প্রয়োজনে পাকিস্তান-ভারত ম্যাচগুলি দুবাইয়ে খেলা যেতে পারে।

এছাড়া আগামী ৯ সেপ্টেম্বর কলম্বোতে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপের সুপার ফোর পর্বের ম্যাচগুলো পাল্লেকেলে বা হাম্বানটোটার মতো বিকল্প ভেন্যুতে স্থানান্তরের সম্ভাবনা রয়েছে। দ্য ডেইলি মিররের খবরে বলা হয়েছে, এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের (এসএলসি) মধ্যে চলমান আলোচনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এসএলসির এক কর্মকর্তা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা জানান, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, ডাম্বুলাকে সম্ভাব্য ভেন্যুহিসেবে বিবেচনা করা হবে না।

আশরাফ এর আগে এশিয়া কাপকে একটি প্রিমিয়ার ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হিসাবে গুরুত্ব দিয়েছিলেন এবং বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট বিঘ্ন রোধের প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দিয়েছিলেন। ফলস্বরূপ, যদি শ্রীলঙ্কায় প্রতিকূল আবহাওয়া অব্যাহত থাকে তবে তিনি বিশ্বাস করেন যে ম্যাচগুলি পাকিস্তানে স্থানান্তরিত করার বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করা জরুরী।

আশরাফের প্রস্তাবের জবাবে জয় শাহ পরিস্থিতি মূল্যায়ন এবং উপযুক্ত সমাধান খুঁজে বের করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ক্যান্ডিতে পাকিস্তান-ভারত ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত হয়েছিল, যার ফলে কোনও চূড়ান্ত ফলাফল পাওয়া যায়নি। তাছাড়া ভারত ও নেপালের মধ্যকার ম্যাচটিও প্রতিকূল বৃষ্টির কারণে ভেসে যাওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।