কলম্বোতে দ্বিতীয় টেস্টে পাকিস্তান খেলার উভয় প্রান্তে তাদের আধিপত্য প্রদর্শন করে, তাদের টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক অর্জন করে।

দুর্দান্ত বোলিং পারফরম্যান্সের পর প্রথম দিনে মাত্র দুই সেশনে অলআউট হয়ে যাওয়ার পর পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা দৃঢ়সংকল্প নিয়ে মাঠে নামেন। তারা মাত্র ১৬.৪ ওভারে ১০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করে, যা একবিংশ শতাব্দীতে টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে তাদের দ্রুততম দলীয় সেঞ্চুরি তে পরিণত হয়।

ইনিংসের শুরুতে ইমাম উল হককে হারানোর পরও আবদুল্লাহ শফিক ও শান মাসুদ দায়িত্ব নেন এবং ছয়ের ওপরে রান রেট বজায় রেখে আক্রমণ চালিয়ে যান। শফিক মাত্র ৪৯ বলে তার অর্ধশতরান পূর্ণ করেন, আর শান মাসুদ ১০০-এর বেশি স্ট্রাইক রেটে রান করতে থাকেন এবং মাত্র ৪৪ বলে তার ফিফটি পূর্ণ করেন।

শান ও শফিকের জুটি অবিশ্বাস্য রসায়ন প্রদর্শন করে এবং তাদের অংশীদারিত্ব মাত্র ১০৩ বলে সেঞ্চুরিতে উন্নীত হয়, যা টেস্ট ক্রিকেটে তাদের প্রথম সেঞ্চুরির অংশীদারিত্ব। এই অসাধারণ কৃতিত্ব ম্যাচে পাকিস্তানের কমান্ডিং অবস্থানকে আরও মজবুত করে।