[fusion_builder_container type=”flex” hundred_percent=”no” hundred_percent_height=”no” min_height_medium=”” min_height_small=”” min_height=”” hundred_percent_height_scroll=”no” align_content=”stretch” flex_align_items=”flex-start” flex_justify_content=”flex-start” flex_column_spacing=”” hundred_percent_height_center_content=”yes” equal_height_columns=”no” container_tag=”div” menu_anchor=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” status=”published” publish_date=”” class=”” id=”” spacing_medium=”” margin_top_medium=”” margin_bottom_medium=”” spacing_small=”” margin_top_small=”” margin_bottom_small=”” margin_top=”” margin_bottom=”” padding_dimensions_medium=”” padding_top_medium=”” padding_right_medium=”” padding_bottom_medium=”” padding_left_medium=”” padding_dimensions_small=”” padding_top_small=”” padding_right_small=”” padding_bottom_small=”” padding_left_small=”” padding_top=”” padding_right=”” padding_bottom=”” padding_left=”” link_color=”” link_hover_color=”” border_sizes=”” border_sizes_top=”” border_sizes_right=”” border_sizes_bottom=”” border_sizes_left=”” border_color=”” border_style=”solid” box_shadow=”no” box_shadow_vertical=”” box_shadow_horizontal=”” box_shadow_blur=”0″ box_shadow_spread=”0″ box_shadow_color=”” box_shadow_style=”” z_index=”” overflow=”” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ background_color=”” background_image=”” skip_lazy_load=”” background_position=”center center” background_repeat=”no-repeat” fade=”no” background_parallax=”none” enable_mobile=”no” parallax_speed=”0.3″ background_blend_mode=”none” video_mp4=”” video_webm=”” video_ogv=”” video_url=”” video_aspect_ratio=”16:9″ video_loop=”yes” video_mute=”yes” video_preview_image=”” render_logics=”” absolute=”off” absolute_devices=”small,medium,large” sticky=”off” sticky_devices=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_background_color=”” sticky_height=”” sticky_offset=”” sticky_transition_offset=”0″ scroll_offset=”0″ animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″][fusion_builder_row][fusion_builder_column type=”1_1″ align_self=”auto” content_layout=”column” align_content=”flex-start” valign_content=”flex-start” content_wrap=”wrap” spacing=”” center_content=”no” link=”” target=”_self” link_description=”” min_height=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_display=”normal,sticky” class=”” id=”” type_medium=”” type_small=”” order_medium=”0″ order_small=”0″ dimension_spacing_medium=”” dimension_spacing_small=”” dimension_spacing=”” dimension_margin_medium=”” dimension_margin_small=”” margin_top=”” margin_bottom=”” padding_medium=”” padding_small=”” padding_top=”” padding_right=”” padding_bottom=”” padding_left=”” hover_type=”none” border_sizes=”” border_color=”” border_style=”solid” border_radius=”” box_shadow=”no” dimension_box_shadow=”” box_shadow_blur=”0″ box_shadow_spread=”0″ box_shadow_color=”” box_shadow_style=”” overflow=”” background_type=”single” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ background_color=”” background_image=”” background_image_id=”” background_position=”left top” background_repeat=”no-repeat” background_blend_mode=”none” render_logics=”” filter_type=”regular” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″ animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” last=”no” border_position=”all”][fusion_content_boxes layout=”icon-with-title” columns=”1″ link_type=”” button_span=”” link_area=”” link_target=”” icon_align=”left” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_delay=”” animation_offset=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” class=”” id=”” title_size=”” heading_size=”2″ title_color=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” body_color=”” backgroundcolor=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”no” iconcolor=”” icon_circle=”” icon_circle_radius=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” icon_size=”” icon_hover_type=”” hover_accent_color=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” margin_top=”” margin_bottom=””][fusion_content_box title=”বিশ্বকাপের ২৭তম ম্যাচের প্রিভিউ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

চলমান টুর্নামেন্টে অস্ট্রেলিয়ার পারফরম্যান্সকে মাঝারি ভাবে সফল হিসাবে চিহ্নিত করা যেতে পারে। তারা যে পাঁচটি ম্যাচ খেলেছে তার মধ্যে তিনটিতে তারা বিজয়ী হয়েছে। বর্তমানে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে তারা। তাদের প্রথম দুটি ম্যাচ ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হেরে শেষ হয়েছিল। তবে সম্প্রতি পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে টানা তিনটি জয় পেয়েছে তারা।

অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ডের পারফরম্যান্স সত্যিই ব্যতিক্রমী। তারা পাঁচটি ম্যাচে অংশ নিয়েছে, এর মধ্যে চারটিতে জিতেছে এবং মাত্র একটিতে হেরেছে। এই অসাধারণ প্রদর্শন তাদের পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে আরামদায়কভাবে রাখে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড পূর্বরূপ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

অস্ট্রেলিয়া: সাম্প্রতিক ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ৩০৯ রানের বিশাল ব্যবধানে জয়ের পর উচ্ছ্বসিত হয়ে এই ম্যাচে মাঠে নামছে অস্ট্রেলিয়া। এর আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬২ রানের জয় পেয়েছিল তারা। সাম্প্রতিক ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের দায়িত্ব পেলেও অস্ট্রেলিয়ার বোলিং ইউনিট দুর্দান্ত পারফরমেন্স দেখিয়েছে। মাত্র ৪৩.৩ ওভারে পুরো প্রতিপক্ষকে গুটিয়ে দিয়ে শ্রীলঙ্কাকে মাত্র ২০৯ রানে আটকে দেয় তারা। অ্যাডাম জাম্পা ৮ ওভারে ৪৭ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে দুর্দান্ত পারফর্মার হিসাবে আবির্ভূত হন। মিচেল স্টার্কও তার দশ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে দুটি উইকেট নিয়ে উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলেছিলেন।

প্যাট কামিন্স সাত ওভারে ৩২ রান দিয়ে দুটি উইকেট নিয়ে দুর্দান্ত অবদান রাখেন। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও জশ হ্যাজেলউড উইকেটশূন্য থাকলেও চাপ বজায় রাখতে ভূমিকা রেখেছেন তারা। ২১০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং অর্ডারও দারুণ পারফর্ম করে ৩৫.২ ওভারে জয় পায়। জশ ইংলিস ৫৯ বলে ৫টি বাউন্ডারি ও একটি বিশাল ছক্কাসহ ৫৮ রান সংগ্রহ করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী হিসেবে উঠে এসেছেন। মিচেল মার্শ তার ৫১ বলের ইনিংসে নয়টি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৫২ রান করে তার দক্ষতা প্রদর্শন করেছিলেন। মার্নাস লাবুশেন ৬০ বলে ক্রিজে থাকার সময় দুটি বাউন্ডারি সহ মোট ৪০ রান যোগ করেন। মার্নাস লাবুশেন অপরাজিত থাকেন ৩১ রানে। এই জয়অস্ট্রেলিয়ার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল কারণ তারা পয়েন্ট টেবিলে একটি অনুকূল অবস্থান নিশ্চিত করতে চায় এবং তারা এখন তাদের আসন্ন ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হতে প্রস্তুত।

নিউজিল্যান্ড: এই টুর্নামেন্টে টানা চারটি জয় নিয়ে দুর্দান্ত জয়ের ধারা উপভোগ করলেও সাম্প্রতিক ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে চার উইকেটের সংক্ষিপ্ত ব্যবধানে হেরে ছে নিউজিল্যান্ড। তবুও, তারা তাদের আগের ম্যাচে আফগানিস্তানকে পরাজিত করে তাদের আধিপত্য প্রদর্শন করেছিল, ১৪৯ রানের দুর্দান্ত জয় অর্জন করেছিল। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করার চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হলেও নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৮৮ রান সংগ্রহ করে তাদের পারফরম্যান্স প্রশংসনীয় ছিল।

গ্লেন ফিলিপস নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সর্বাধিক রান সংগ্রহকারী হিসাবে আবির্ভূত হন, ৮০ বলে দলের সংগ্রহে ৭১ রান অবদান রাখেন, চারটি বাউন্ডারি এবং সমান সংখ্যক বিশাল ছক্কা দিয়ে সজ্জিত। টম ল্যাথাম ৭৪ বলে ৬৮ রান করে তিনটি বাউন্ডারি ও দুটি বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে এই প্রচেষ্টার পরিপূরক হন। আরেক মূল্যবান অবদানকারী উইল ইয়ং ৫৪ রান করে চারটি বাউন্ডারি ও তিনটি চিত্তাকর্ষক ছক্কা দিয়ে তার দক্ষতা প্রদর্শন করেন। রাচিন রবীন্দ্র ও মার্ক চ্যাপমা

নিউজিল্যান্ডের বোলিং ইউনিট আগের ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছিল, ৩৪.৪ ওভারে আফগানিস্তানকে মাত্র ১৩৯ রানে গুটিয়ে দিয়ে তাদের ২৮৯ রান সফলভাবে রক্ষা করেছিল। লকি ফার্গুসন তার সাত ওভারের স্পেলে মাত্র ১৯ রান খরচ করে তিনটি উইকেট নিয়েছিলেন। মিচেল স্যান্টনার তার তিনটি উইকেট নিয়ে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছিলেন, যদিও তিনি কিছুটা ব্যয়বহুল ছিলেন, ৭.৪ ওভারে ৩৯ রান দিয়েছিলেন। ট্রেন্ট বোল্ট সাত ওভারে ১৮ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন এবং ম্যাট হেনরি ও রাচিন রবীন্দ্র একটি করে উইকেট নেন। গ্লেন ফিলিপস একমাত্র বোলার ছিলেন যিনি উইকেটহীন ছিলেন।

তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায়, নিউজিল্যান্ড আসন্ন ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে উল্লেখযোগ্য ব্যবধানে জয় লাভ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড সম্ভাব্য একাদশ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

অস্ট্রেলিয়া একাদশ: প্যাট কামিন্স (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, মিচেল মার্শ, স্টিভ স্মিথ, জশ ইংলিস ( উইকেটরক্ষক), মার্নাস লাবুশেন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ক্যামেরন গ্রিন, মিচেল স্টার্ক, জশ হ্যাজেলউড, অ্যাডাম জাম্পা।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: টম ল্যাথাম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), ডেভন কনওয়ে, উইল ইয়ং, রাচিন রবীন্দ্র, ড্যারিল মিচেল, গ্লেন ফিলিপস, মিচেল স্যান্টনার, ইশ সোধি। ম্যাট হেনরি, লকি ফার্গুসন, ট্রেন্ট বোল্ট।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড ড্রিম ১১ ফ্যান্টাসি টিপস” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

অধিনায়ক: ডেভিড ওয়ার্নার
সহ-অধিনায়ক: টম ল্যাথাম
স্টিভেন স্মিথ, মিচেল মার্শ, ড্যারিল মিচেল, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল স্যান্টনার, ডেভন কনওয়ে, জশ ইংলিস, অ্যাডাম জাম্পা, ট্রেন্ট বোল্ট।

[/fusion_content_box][/fusion_content_boxes][fusion_imageframe image_id=”10207|full” aspect_ratio=”” custom_aspect_ratio=”100″ aspect_ratio_position=”” sticky_max_width=”” skip_lazy_load=”” lightbox=”no” gallery_id=”” lightbox_image=”” lightbox_image_id=”” alt=”” link=”” linktarget=”_self” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_display=”normal,sticky” class=”” id=”” max_width=”” align_medium=”none” align_small=”none” align=”none” mask=”” custom_mask=”” mask_size=”” mask_custom_size=”” mask_position=”” mask_custom_position=”” mask_repeat=”” style_type=”” blur=”” stylecolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” hover_type=”none” margin_top_medium=”” margin_right_medium=”” margin_bottom_medium=”” margin_left_medium=”” margin_top_small=”” margin_right_small=”” margin_bottom_small=”” margin_left_small=”” margin_top=”” margin_right=”” margin_bottom=”” margin_left=”” bordersize=”” bordercolor=”” borderradius=”” caption_style=”off” caption_align_medium=”none” caption_align_small=”none” caption_align=”none” caption_title_medium=”” caption_title_small=”” caption_title=”” caption_text=”” caption_title_color=”” caption_title_tag=”2″ fusion_font_family_caption_title_font=”” fusion_font_variant_caption_title_font=”” caption_title_size=”” caption_title_transform=”” caption_text_color=”” caption_background_color=”” fusion_font_family_caption_text_font=”” fusion_font_variant_caption_text_font=”” caption_text_size=”” caption_text_transform=”” caption_border_color=”” caption_overlay_color=”” caption_margin_top=”” caption_margin_right=”” caption_margin_bottom=”” caption_margin_left=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″]https://bangla.cricdiction.com/wp-content/uploads/2023/10/Australia-vs-New-Zealand-Head-To-Head-Records.jpg[/fusion_imageframe][fusion_title title_type=”text” rotation_effect=”bounceIn” display_time=”1200″ highlight_effect=”circle” loop_animation=”off” highlight_width=”9″ highlight_top_margin=”0″ before_text=”” rotation_text=”” highlight_text=”” after_text=”” title_link=”off” link_url=”” link_target=”_self” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_display=”normal,sticky” class=”” id=”” content_align_medium=”” content_align_small=”” content_align=”left” size=”2″ animated_font_size=”” fusion_font_family_title_font=”” fusion_font_variant_title_font=”” font_size=”” line_height=”” letter_spacing=”” text_transform=”” text_color=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” animated_text_color=”” text_shadow=”no” text_shadow_vertical=”” text_shadow_horizontal=”” text_shadow_blur=”0″ text_shadow_color=”” margin_top_medium=”” margin_right_medium=”” margin_bottom_medium=”” margin_left_medium=”” margin_top_small=”” margin_right_small=”” margin_bottom_small=”” margin_left_small=”” margin_top=”” margin_right=”” margin_bottom=”” margin_left=”” margin_top_mobile=”” margin_bottom_mobile=”” gradient_font=”no” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ highlight_color=”” style_type=”default” sep_color=”” link_color=”” link_hover_color=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড হেড-টু-হেড রেকর্ড

[/fusion_title][fusion_table fusion_table_type=”1″ fusion_table_rows=”” fusion_table_columns=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” class=”” id=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

পরিসংখ্যান ম্যাচ অস্ট্রেলিয়া জয় নিউজিলেন্ড জয় কোন রেজাল্ট নেই সমতা
সামগ্রিক ১৪১ ৯৫ ৩৯
সাম্প্রতিক ৫ ম্যাচ  ০

[/fusion_table][fusion_content_boxes layout=”icon-with-title” columns=”1″ link_type=”” button_span=”” link_area=”” link_target=”” icon_align=”left” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_delay=”” animation_offset=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” class=”” id=”” title_size=”” heading_size=”2″ title_color=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” body_color=”” backgroundcolor=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”no” iconcolor=”” icon_circle=”” icon_circle_radius=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” icon_size=”” icon_hover_type=”” hover_accent_color=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” margin_top=”” margin_bottom=””][fusion_content_box title=”প্রিয় স্কোয়াড” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ক্রিকেটের ভবিষ্যদ্বাণী অনুসারে, নিউজিল্যান্ড এই আসন্ন ম্যাচে জয় নিশ্চিত করার জন্য পছন্দসই দল হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে, বিভিন্ন আকর্ষণীয় কারণের কারণে যা তাদের সুবিধাকে বাড়িয়ে তোলে।

  • ধারাবাহিক টুর্নামেন্ট পারফরম্যান্স: নিউজিল্যান্ড চলমান টুর্নামেন্টে একটি চিত্তাকর্ষক পারফরম্যান্স দিয়েছে, তাদের চারটি ম্যাচে জয় পেয়েছে। এই টেকসই শ্রেষ্ঠত্ব একটি শক্তিশালী দল হিসাবে তাদের খ্যাতি দৃঢ় করেছে।
  • ইন-ফর্ম মূল ব্যাটসম্যান: নিউজিল্যান্ডে বর্তমানে অসাধারণ ফর্মে থাকা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যানদের তালিকা রয়েছে। তাদের ধারাবাহিকভাবে রান করার ক্ষমতা দলের সাফল্যের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ।
  • কার্যকর বোলিং ইউনিট: নিউজিল্যান্ডের বোলিং ইউনিট আগের ম্যাচগুলিতে ব্যতিক্রমী দক্ষতা প্রদর্শন করেছে। গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নেওয়ার এবং প্রতিপক্ষের উপর চাপ বজায় রাখার তাদের সম্মিলিত ক্ষমতা তাদের একটি শক্তিশালী শক্তি তে পরিণত করে।

বিপরীতে, অস্ট্রেলিয়া টানা তিনটি জয় অর্জন করেছে, যা ইঙ্গিত দেয় যে তাদের মূল খেলোয়াড়রা তাদের শীর্ষ ফর্ম ফিরে পাচ্ছে। এই পুনরুত্থান আসন্ন ম্যাচটিকে একটি রোমাঞ্চকর প্রতিযোগিতায় পরিণত করার প্রতিশ্রুতি দেয়, তবে নিউজিল্যান্ডের শক্তিশালী সামগ্রিক পারফরম্যান্স এবং ফর্মে থাকা খেলোয়াড়রা তাদের ফেভারিট হিসাবে স্থান দেয়।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”জয়ের সম্ভাবনা” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ এবং শক্তিশালী বোলিং ইউনিট নিয়ে নিউজিল্যান্ড এই ম্যাচে একটি ভাল দল হিসাবে প্রবেশ করেছে, যা আজ তাদের জয়ের সম্ভাবনাকে উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়িয়ে তুলেছে। আজকের ক্রিকেট ম্যাচের ভবিষ্যদ্বাণী অনুসারে, নিম্নলিখিত সমীকরণটি প্রত্যাশিত ফলাফলের অন্তর্দৃষ্টি সরবরাহ করে:

নিউজিল্যান্ডের জয়ের সম্ভাবনা ৫৮ শতাংশ।
তাদের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়ার জয়ের সম্ভাবনা ৪২ শতাংশ।

এই ভবিষ্যদ্বাণী আসন্ন প্রতিযোগিতায় নিউজিল্যান্ডের সুবিধাকে তুলে ধরে, তাদের ভারসাম্যপূর্ণ দল গঠন এবং টুর্নামেন্টে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড টসের পূর্বাভাস” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০২৩-এ ম্যাচের ফলাফল নির্ধারণে টসের তাৎপর্যকে অতিক্রম করা যায় না। টসের ভবিষ্যদ্বাণীর উপর ভিত্তি করে ধারণা করা হচ্ছে, টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেবে দলটি। এই সিদ্ধান্তটি এই প্রত্যাশা দ্বারা প্রভাবিত হয় যে পিচের আচরণ উভয় ইনিংস জুড়ে ধারাবাহিক থাকবে, প্রথমে ব্যাটিংকে কৌশলগত সুবিধা করে তুলবে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড পিচ রিপোর্ট” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

২০২৩ সালের ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ২৭তম ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ধর্মশালার হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে। ঐতিহাসিকভাবে, এই ভেন্যুটি ব্যাটসম্যানদের জন্য একটি অনুকূল পিচ সরবরাহ করেছে, যদিও অন্যান্য অবস্থানের তুলনায় ধীর গতিতে। এটি স্পিনারদেরও সহায়তা করে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে যে পিচটি আরও খারাপ হবে, যা এই ম্যাচে ব্যাটিংকে আরও চ্যালেঞ্জিং করে তুলবে। ৩০০ রানের বেশি রান করা একটি কঠিন কাজ উপস্থাপন করতে পারে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড আবহাওয়া প্রতিবেদন” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ধর্মশালায় আসন্ন ক্রিকেট ম্যাচের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রতিকূল, বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও আমরা একটি সম্পূর্ণ ম্যাচ নিয়ে আশাবাদী, তবে এটি লক্ষণীয় যে সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ায় যথেষ্ট পরিমাণে বৃষ্টি হয়েছে, যা পূর্ববর্তী কয়েকটি ম্যাচকে প্রভাবিত করেছে। সুতরাং, বৃষ্টি এই ম্যাচে প্রভাব ফেলতে পারে এবং ডাকওয়ার্থ-লুইস-স্টার্ন (ডিএলএস) পদ্ধতিটি খেলায় আসতে পারে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”স্থানের তথ্য” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

  • ভেন্যু: হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়াম
  • শহর: ধর্মশালা, ভারত
  • টাইম জোন: ইউটিসি +০৫:৩০
  • প্রতিষ্ঠিত: ২০০৩
  • বসার ক্ষমতা: ২৩,০০০
  • খেলা শেষ: রিভার এন্ড, কলেজ এন্ড
  • হোম দল: হিমাচল প্রদেশ, পাঞ্জাব কিংস
  • ফ্লাডলাইট: উপলব্ধ

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ভেন্যুতে ওয়ানডে স্কোরিং ট্রেন্ড:” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

  • খেলা খেলার সংখ্যা: ৮টি
  • প্রথমে ব্যাট করা দলগুলোর ম্যাচ জয়: ৩
  • প্রথম বোলিংয়ে দল বিজয়ী: ৫
  • প্রথম ইনিংসে গড় স্কোর: ২১৪
  • দ্বিতীয় ইনিংসে গড় স্কোর: ২০১
  • সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ: ৩৩০/৬ (৫০ ওভার) ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
  • সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহ: ১১২/১০ (৩৮.২ ওভার) ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা
  • সর্বোচ্চ সফল রান তাড়া: ২২৭/৩ (৪৭.২ ওভার) ইংল্যান্ড বনাম ভারত
  • সর্বনিম্ন সংরক্ষিত স্কোর: ৩৩০/৬ (৫০ ওভার) ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ

[/fusion_content_box][/fusion_content_boxes][/fusion_builder_column][/fusion_builder_row][/fusion_builder_container]