[fusion_builder_container type=”flex” hundred_percent=”no” hundred_percent_height=”no” min_height_medium=”” min_height_small=”” min_height=”” hundred_percent_height_scroll=”no” align_content=”stretch” flex_align_items=”flex-start” flex_justify_content=”flex-start” flex_column_spacing=”” hundred_percent_height_center_content=”yes” equal_height_columns=”no” container_tag=”div” menu_anchor=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” status=”published” publish_date=”” class=”” id=”” spacing_medium=”” margin_top_medium=”” margin_bottom_medium=”” spacing_small=”” margin_top_small=”” margin_bottom_small=”” margin_top=”” margin_bottom=”” padding_dimensions_medium=”” padding_top_medium=”” padding_right_medium=”” padding_bottom_medium=”” padding_left_medium=”” padding_dimensions_small=”” padding_top_small=”” padding_right_small=”” padding_bottom_small=”” padding_left_small=”” padding_top=”” padding_right=”” padding_bottom=”” padding_left=”” link_color=”” link_hover_color=”” border_sizes=”” border_sizes_top=”” border_sizes_right=”” border_sizes_bottom=”” border_sizes_left=”” border_color=”” border_style=”solid” box_shadow=”no” box_shadow_vertical=”” box_shadow_horizontal=”” box_shadow_blur=”0″ box_shadow_spread=”0″ box_shadow_color=”” box_shadow_style=”” z_index=”” overflow=”” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ background_color=”” background_image=”” skip_lazy_load=”” background_position=”center center” background_repeat=”no-repeat” fade=”no” background_parallax=”none” enable_mobile=”no” parallax_speed=”0.3″ background_blend_mode=”none” video_mp4=”” video_webm=”” video_ogv=”” video_url=”” video_aspect_ratio=”16:9″ video_loop=”yes” video_mute=”yes” video_preview_image=”” render_logics=”” absolute=”off” absolute_devices=”small,medium,large” sticky=”off” sticky_devices=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_background_color=”” sticky_height=”” sticky_offset=”” sticky_transition_offset=”0″ scroll_offset=”0″ animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″][fusion_builder_row][fusion_builder_column type=”1_1″ align_self=”auto” content_layout=”column” align_content=”flex-start” valign_content=”flex-start” content_wrap=”wrap” spacing=”” center_content=”no” link=”” target=”_self” link_description=”” min_height=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_display=”normal,sticky” class=”” id=”” type_medium=”” type_small=”” order_medium=”0″ order_small=”0″ dimension_spacing_medium=”” dimension_spacing_small=”” dimension_spacing=”” dimension_margin_medium=”” dimension_margin_small=”” margin_top=”” margin_bottom=”” padding_medium=”” padding_small=”” padding_top=”” padding_right=”” padding_bottom=”” padding_left=”” hover_type=”none” border_sizes=”” border_color=”” border_style=”solid” border_radius=”” box_shadow=”no” dimension_box_shadow=”” box_shadow_blur=”0″ box_shadow_spread=”0″ box_shadow_color=”” box_shadow_style=”” overflow=”” background_type=”single” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ background_color=”” background_image=”” background_image_id=”” background_position=”left top” background_repeat=”no-repeat” background_blend_mode=”none” render_logics=”” filter_type=”regular” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″ animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” last=”no” border_position=”all”][fusion_content_boxes layout=”icon-with-title” columns=”1″ link_type=”” button_span=”” link_area=”” link_target=”” icon_align=”left” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_delay=”” animation_offset=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” class=”” id=”” title_size=”” heading_size=”2″ title_color=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” body_color=”” backgroundcolor=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”no” iconcolor=”” icon_circle=”” icon_circle_radius=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” icon_size=”” icon_hover_type=”” hover_accent_color=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” margin_top=”” margin_bottom=””][fusion_content_box title=”ম্যাচের বিবরণ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

২০২৩ এশিয়া কাপের তৃতীয় ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২ সেপ্টেম্বর। প্রতিদ্বন্দ্বী দলপাকিস্তান ও ভারত এবং এই উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচের ভেন্যু হবে পাল্লেকেলেতে অবস্থিত পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ম্যাচের সংক্ষিপ্ত বিবরণ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যকার ম্যাচটি বিশ্বজুড়ে সর্বাধিক দেখা ক্রিকেট ম্যাচ হিসাবে দাঁড়িয়েছে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের একটি ক্রিকেট ম্যাচ একটি দুর্দান্ত দৃশ্যের চেয়ে কম কিছু নয়। দুই দেশের সরকারের রাজনৈতিক জটিলতার কারণে এই দুই ক্রিকেট জায়ান্টের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ স্থগিত করা হয়েছে। ফলে তাদের সভাগুলো এখন শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) টুর্নামেন্টের মধ্যেই সীমাবদ্ধ।

আসন্ন ম্যাচটি উভয় দলের জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ, বিশেষত আইসিসি পুরুষদের ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপে তাদের পূর্ববর্তী মুখোমুখি লড়াইয়ের কথা বিবেচনা করে। উল্লেখ্য, বিশ্বকাপের সূচি অনুযায়ী ভারত ও পাকিস্তান কে একই গ্রুপে রাখা হয়েছে। ভারত ও পাকিস্তান উভয়ই সুপার ফোর পর্বে উঠবে বলে প্রত্যাশা রয়েছে, কারণ তাদের গ্রুপ-সতীর্থ নেপাল এই শক্তিশালী প্রতিপক্ষের যে কোনও একটির বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জের স্তর বিবেচনা করে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”পাকিস্তান পর্যালোচনা” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

আইসিসি র ্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠে এসেছে পাকিস্তান। আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি বিজয়ী সিরিজের মাধ্যমে এই উত্থান অর্জন করা হয়েছিল, যেখানে তাদের অনবদ্য পেস বোলিং ইউনিট, দুর্দান্ত ব্যাটিং প্রদর্শন এবং ব্যতিক্রমী অলরাউন্ড পারফরম্যান্স গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণিত হয়েছিল। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে পাকিস্তানের প্রশংসনীয় ট্র্যাক রেকর্ড থাকলেও বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে তারা ঐতিহাসিকভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তবে ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ টার্নিং পয়েন্ট ঘটেছিল, যখন পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত জয় অর্জন করে ইতিহাস রচনা করেছিল। পরবর্তীকালে, ২০২১ বিশ্বকাপ এবং এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলিতে এই গতি বজায় ছিল, এই জাতীয় জয়ের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর প্রকৃতিকে তুলে ধরেছিল।

পাকিস্তানের উচ্চ ও মধ্যম ব্যাটিং অর্ডার অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের দ্বারা পরিপূর্ণ, নীচের লাইনআপে শক্তিশালী হিটারদের দ্বারা পরিপূরক। ইমাম উল হক, বাবর আজম, মোহাম্মদ রিজওয়ান ও ফখর জামানের মতো গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যানরা নেতৃত্ব দিচ্ছেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ইমাম উল হকের সাম্প্রতিক শক্তিশালী পারফরম্যান্স তার দক্ষতাকে তুলে ধরেছে। পূর্ববর্তী ৬২ ম্যাচে ৯ টি সেঞ্চুরি এবং ১৮ টি অর্ধশতকের চিত্তাকর্ষক ট্র্যাক রেকর্ড সহ, তিনি ৫১.৫০ গড় বজায় রেখেছেন। বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান অসাধারণ ফর্মে রয়েছেন। এই টুর্নামেন্টে নেপালের বিপক্ষে বাবর আজমের সাম্প্রতিক ১৫১ রান তার অসাধারণ ফর্মের সাক্ষ্য দেয়। একইভাবে, নেপালের বিপক্ষে মোহাম্মদ রিজওয়ানের ৫০ বলে ৪৪ রান তার অবদানকে তুলে ধরে। আর একজন সেরা ব্যাটসম্যান হলেন ইফতিখার আহমেদ, যিনি নেপালের বিপক্ষে তার প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেছিলেন, মাত্র ৭১ বলে ১১ টি বাউন্ডারি এবং চারটি দুর্দান্ত ছক্কা দিয়ে এই কৃতিত্ব অর্জন করেছিলেন।

পাকিস্তানের শক্তির আসল মেরুদণ্ড তার বোলিং অস্ত্রাগারে রয়েছে। শাহিন আফ্রিদির নেতৃত্বে এবং হারিস রউফ এবং নাসিম শাহের সমর্থনে এই তিন পেসার ভারত সহ বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপকেও ভেঙে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। আক্রমণভাগকে শক্তিশালী করছেন স্পিন মাস্টার মোহাম্মদ নওয়াজ এবং শাদাব খান, যারা পাকিস্তানের বোলিং ইউনিটের গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ভারত পর্যালোচনা” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

এই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ শুরু হওয়ার ঠিক আগে ভারত একটি বড় ধাক্কার মুখোমুখি হয়েছিল। কেএল রাহুলের অনুপস্থিতি, যিনি টিম ইন্ডিয়ার ওপেনিং ব্যাটসম্যান এবং উইকেটরক্ষক হিসাবে কাজ করেন, টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জ ছিল। ফলস্বরূপ, তাদের মূল খেলোয়াড়দের ব্যাটিং অর্ডারে সামঞ্জস্য করা দরকার। ধারণা করা হচ্ছে, রোহিত শর্মার পাশাপাশি কেএল রাহুলের পরিবর্তে ওপেনিংয়ের দায়িত্ব নিতে পারেন ইশান কিষাণ। শুভমান গিল তিন নম্বরে এবং বিরাট কোহলি চার নম্বরে ব্যাট করবেন। টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিং লাইনআপের স্থিতিস্থাপকতা ব্যাপকভাবে স্বীকৃত, এমনকি সপ্তম স্থানেও তার শক্তি প্রসারিত করে।

বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মার মতো রান সংগ্রহকারী কিংবদন্তিদের উপর স্বাভাবিকভাবেই নজর পড়লেও সাম্প্রতিক ম্যাচগুলিতে শুভমান গিল যে অসাধারণ ফর্ম দেখিয়েছেন তা উপেক্ষা করা যায় না। শাহিন আফ্রিদি এবং হারিস রউফের মতো পাকিস্তানের পেস বোলারদের সাথে তার দ্বন্দ্ব খেলাটির একটি আকর্ষণীয় দিক হতে চলেছে। টিম ইন্ডিয়ার উপরের ব্যাটিং অর্ডারে যথেষ্ট শক্তি রয়েছে, একটি শক্তিশালী মিডল অর্ডার দ্বারা পরিপূরক। হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা এবং অক্ষর প্যাটেল এই দলে অবদান রাখতে চলেছেন। তবুও, ভারত তাদের বোলারদের ব্যাটিং দক্ষতার অভাবের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়, এবং বিপরীতে, তাদের নিয়মিত বোলাররা কার্যকরভাবে উইলো চালানোর জন্য লড়াই করে।

ভারতের ব্যাটিং শক্তি সপ্তম স্থান পর্যন্ত বিস্তৃত, তবে এই মুহুর্তে, অন্য কোনও খেলোয়াড় কার্যকরভাবে ক্রিজ দখল করতে পারে বলে মনে হয় না। ভারতীয় বোলিং আর্সেনালে তিন প্রধান পেসার মোহাম্মদ শামি, মোহাম্মদ সিরাজ এবং জসপ্রীত বুমরাহর দক্ষতা রয়েছে। কব্জি-স্পিন বিশেষজ্ঞ কুলদীপ যাদবকে প্রথম একাদশে অন্তর্ভুক্ত করার পাশাপাশি ভারত দুটি সীম বোলারের সংমিশ্রণবেছে নেবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”প্রিয় দল” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ওডিআই ক্রিকেটের ক্ষেত্রে, ভারত একটি শক্তিশালী এবং অভিজ্ঞ দল হিসাবে দাঁড়িয়েছে, এতে কোনও সন্দেহ নেই যে তারা অন্তত কাগজে-কলমে পাকিস্তানের চেয়ে সামগ্রিকভাবে সুবিধা অর্জন করে। এশিয়া কাপের ভবিষ্যদ্বাণী অনুযায়ী, আসন্ন এই ম্যাচে জয়ের জন্য ফেভারিট দাবিদার হিসাবে আবির্ভূত হবে ভারত। তৃতীয় ম্যাচের জন্য অনুকূল দল হিসাবে ভারতের অবস্থানে অনেকগুলি কারণ অবদান রাখে, নীচে বেশ কয়েকটি মূল দিক তুলে ধরা হয়েছে:

  • ব্যাপক শক্তি এবং অভিজ্ঞতা:
    ভারত একটি সম্মিলিত শক্তি এবং অভিজ্ঞতা অর্জন করে যা পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে যায়, তার সামগ্রিক দক্ষতাকে বাড়িয়ে তোলে।
  • সাম্প্রতিক আধিপত্য:
    পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ পাঁচ ওয়ানডে ম্যাচের মধ্যে চারটিতে জয় পেয়ে সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের আধিপত্য ধরে রেখেছে ভারত।
  • শক্তিশালী বোলিং:
    যদিও পাকিস্তানের আরও শক্তিশালী বোলিং ইউনিট রয়েছে, তবে এটি স্বীকার করা গুরুত্বপূর্ণ যে এই ক্ষেত্রে ভারতের দক্ষতাকে অবমূল্যায়ন করা
  • উচিত নয়।শক্তিশালী ব্যাটিং অর্ডার:
    ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ উল্লেখযোগ্য গভীরতা এবং শক্তি প্রদর্শন করে, পাকিস্তানের তুলনায় তাদের সুবিধাজনক অবস্থানে রাখে।
  • স্টেলার পারফরম্যান্স:
    উল্লেখ্য, বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান বর্তমানে ব্যতিক্রমী ফর্ম উপভোগ করছেন, যা পাকিস্তানের পারফরম্যান্সে শক্তির স্তর যুক্ত করেছে

সামগ্রিকভাবে, যদিও ভারত বিভিন্ন ফ্রন্টে একটি কমান্ডিং অবস্থান বজায় রেখেছে, তবে এটি স্বীকার করা গুরুত্বপূর্ণ যে ক্রিকেট খেলাটি প্রায়শই অপ্রত্যাশিত মোড় এবং মোড় নিয়ে আসে এবং যে কোনও দিন, মাঠে পারফরম্যান্স প্রত্যাশাকে অগ্রাহ্য করতে পারে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”জয়ের সুযোগ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ওডিআই ক্রিকেটের ক্ষেত্রে, ভারত তার পদমর্যাদার মধ্যে অভিজ্ঞ এবং তরুণ প্রতিভার মিশ্রণ মিশ্রিত করে। ওয়ানডে ফরম্যাটের বিখ্যাত পাওয়ার হিটারদের সমন্বয়ে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপের কারণে আজকের ম্যাচে দলের জয়ের সম্ভাবনা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আজকের ক্রিকেট ম্যাচের ফলাফল এবং তৃতীয় ম্যাচের ফলাফলের পূর্বাভাস নীচে দেওয়া হল:

তৃতীয় টেস্টে জয়ের সম্ভাবনা ৫৪ শতাংশ।
তৃতীয় টেস্টে পাকিস্তানের জয়ের সম্ভাবনা ৪৬ শতাংশ।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”টস ভবিষ্যদ্বাণী” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

২০২৩ সালের এশিয়া কাপের সব ম্যাচ জুড়ে টসের ফলাফল যথেষ্ট প্রভাব ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে। স্কোরবোর্ডে একটি প্রতিযোগিতামূলক স্কোর সংগ্রহ করা এই উচ্চ-ঝুঁকিপূর্ণ লড়াইয়ে উল্লেখযোগ্য প্রভাব রাখে। কয়েন টসের পূর্বাভাস অনুযায়ী, যে দল টসে জিতবে তারা প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”পিচ রিপোর্ট” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপ ের তৃতীয় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। এই ভেন্যুর ক্রিকেট পিচটি উল্লেখযোগ্য গতি এবং বাউন্সের সাথে মিলিত একটি প্রধানত ব্যাটিং প্ল্যাটফর্ম উপস্থাপন করে। এটি লক্ষণীয় যে ট্র্যাকটি তার সমকক্ষদের তুলনায় কম গতি প্রদর্শন করে, যার ফলে স্পিন বোলারদের যথেষ্ট সহায়তা দেওয়া হয়। প্রত্যাশাগুলি ধীরে ধীরে পৃষ্ঠের ধীরগতির দিকে পরিচালিত হয়, সম্ভবত এই তৃতীয় টেস্টে ব্যাটিংকে আরও চ্যালেঞ্জিং করে তোলে। ২৭০ থেকে ২৮০ পর্যন্ত স্কোর অর্জন করা যে কোনও তাড়া করা দলের জন্য বেশ শক্তিশালী প্রচেষ্টা হিসাবে প্রমাণিত হতে পারে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”আবহাওয়া প্রতিবেদন” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

পাল্লেকেলেতে, আবহাওয়ার দৃষ্টিভঙ্গি গরম হওয়ার কথা রয়েছে, যা খেলোয়াড়দের জন্য একটি শারীরিক চ্যালেঞ্জ তৈরি করেছে। ম্যাচের দিন মেঘের আভাস পাওয়া গেলেও আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বৃষ্টির কোনো পূর্বাভাস নেই। ফলস্বরূপ, সম্ভবত তৃতীয় ম্যাচটি কোনও বাধা ছাড়াই এগিয়ে যাবে, যার ফলে নিরবচ্ছিন্ন লড়াইয়ের অনুমতি দেওয়া হবে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”পাকিস্তান বনাম ভারত হেড-টু-হেড রেকর্ডস” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

একদিনের আন্তর্জাতিক (ওডিআই) ক্রিকেটে পাকিস্তান ও ভারত ১৩২ বার পথ অতিক্রম করেছে। এর মধ্যে পাকিস্তান ৭৩ টি ম্যাচে জিতেছে এবং ভারত ৫৫ টি ম্যাচে জয় লাভ করেছে। উল্লেখ্য, পাকিস্তান বনাম ভারত প্রতিদ্বন্দ্বিতার চারটি ম্যাচ চূড়ান্ত ফলাফল ছাড়াই শেষ হয়েছে।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”পাকিস্তান বনাম ভারত সম্ভাব্য একাদশ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

পাকিস্তান একাদশ: ফখর জামান, ইমাম-উল-হক, বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), আগা সালমান, ইফতিখার আহমেদ, শাদাব খান, মোহাম্মদ নওয়াজ, শাহিন আফ্রিদি, নাসিম শাহ, হারিস রউফ।

ভারত একাদশ: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শুভমান গিল, বিরাট কোহলি, ইশান কিষাণ, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, অক্ষর প্যাটেল, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ শামি, মোহাম্মদ সিরাজ, জসপ্রীত বুমরাহ।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ম্যাচের তারিখ ও সময়” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

তারিখ: শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
সময়: ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন জি এম টি / ০২:৩০ অপরাহ্ণ স্থানীয় / ০৩:০০ অপরাহ্নি আই এস টি

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”স্থানের বিবরণ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

স্টেডিয়াম: পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম
অবস্থান: পাল্লেকেলে, ভারত
ক্যাপাসিটি: ৩৫,০০০
আয়তন: ৮০ মিটার লম্বা, ৭৫ মিটার প্রশস্ত
শেষ: হুন্নাসগিরিয়া শেষ, রিকিল্লাগাস্কাদা শেষ
টাইম জোন: ইউটিসি +০৫:৩০
হোম: কান্ডুরাটা
ফ্লাডলাইট: হ্যাঁ
কিউরেটর: অসিথা বিজেসিংহে

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ওয়ানডেতে ভেন্যু স্কোরিং প্যাটার্ন” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

সর্বমোট ম্যাচ: ৩৬
প্রথমে ব্যাট করে ম্যাচ জয়ী: ১৫
ম্যাচ জয়ী প্রথম বোলিং: ২০
গড় ১ম ইন স্কোর: ২৫০
গড় ৩য় ইনস স্কোর: ২০২
সর্বাধিক রেকর্ড করা মোট: ৩৬৩/৭ (৫০ ওভার) সাউথ আাফ্রিকা বনাম শ্রিলংকা
সর্বনিম্ন মোট রেকর্ড: ৭০/১০ (২৪.৪ ওভি) জিমবাবু বনাম শ্রিলংকা
সর্বোচ্চ রান তাড়া: ৩১৪/৬ (৪৯.৪ ওভার) শ্রীলঙ্কা বনাম আফগানিস্তান
সর্বনিম্ন স্কোর: ২০৬/৯ (৩৬ ওভার) ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম শ্রীলঙ্কা

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”পাকিস্তান স্কোয়াড” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

ফাহিম আশরাফ, মোহাম্মদ হারিস, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, আবদুল্লাহ শফিক, ওসামা মীর, সৌদ শাকিল, ফখর জামান, ইমাম-উল-হক, বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), আগা সালমান, ইফতিখার আহমেদ, শাদাব খান, মোহাম্মদ নওয়াজ, শাহিন আফ্রিদি, নাসিম শাহ, হারিস রউফ।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ভারত স্কোয়াড” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শুভমান গিল, হার্দিক পান্ডিয়া, বিরাট কোহলি, শ্রেয়াস আইয়ার, সূর্যকুমার যাদব, তিলক ভার্মা, লোকেশ রাহুল, ইশান কিষাণ, রবীন্দ্র জাদেজা, শার্দুল ঠাকুর, অক্ষর প্যাটেল, কুলদীপ যাদব, মহম্মদ শামি, মহম্মদ সিরাজ।

[/fusion_content_box][/fusion_content_boxes][/fusion_builder_column][/fusion_builder_row][/fusion_builder_container]