ইএসপিএন ক্রিকইনফোর সঙ্গে এক আলোচনায় রবি শাস্ত্রী পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজমের দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণকরার তাৎপর্য তুলে ধরেন।

৩০ ও ৪০-এর দশকের আশাব্যঞ্জক শুরুকে সেঞ্চুরিতে রূপান্তর িত করার আজমের দক্ষতার প্রশংসা করেন শাস্ত্রী, এই দক্ষতাটি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন তিনি।

বাবরের ৩০ ও ৪০-এর দশককে সেঞ্চুরিতে রূপান্তর করার দক্ষতা রয়েছে। এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যদিও আমরা প্রায়শই যথেষ্ট সংখ্যক বলের মুখোমুখি হওয়ার গুরুত্বের উপর জোর দিই, তবে আপনার শীর্ষ তিন ব্যাটসম্যানের মধ্যে একজন যদি সেঞ্চুরি করেন তবে আপনি সহজেই ৩০০ রানের মাইলফলক অতিক্রম করতে পারেন।

শনিবার পাল্লেকেলেতে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার আসন্ন এশিয়া কাপ ২০২৩-এর ম্যাচ সম্পর্কেও শাস্ত্রী তার অন্তর্দৃষ্টি তুলে ধরেন।

“আমি বলব ভারত ফেভারিট হিসেবে শুরু করে। ২০১১ সালের পর এটাই তাদের সবচেয়ে শক্তিশালী দল, প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের মিশ্রণ। “তাদের একজন অভিজ্ঞ অধিনায়কও রয়েছে যিনি কন্ডিশনকে অন্যদের চেয়ে ভাল বোঝেন।

তবে এটা লক্ষণীয় যে, পাকিস্তান এই ব্যবধান কমিয়ে দিয়েছে। সাত-আট বছর আগেও দুই দলের শক্তির মধ্যে লক্ষণীয় পার্থক্য ছিল, খেলোয়াড় থেকে খেলোয়াড়। কিন্তু পাকিস্তান এই বিভাজন উল্লেখযোগ্যভাবে দূর করেছে। তারা একটি শক্তিশালী দল, তাই আমাদের সেরাটা দিতে হবে।