আইসিসির একটি উল্লেখযোগ্য আপডেটে, আসন্ন বিশ্বকাপের সূচিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে, যার প্রভাব পড়েছে পাকিস্তানের সাথে জড়িত তিনটি ম্যাচকে প্রভাবিত করে।

এবারের আইসিসি পুরুষ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার বহুল প্রত্যাশিত ম্যাচটি পুনঃতফসিল করা হয়েছে এবং আরও আটটি ম্যাচের বিবরণে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

১৫ অক্টোবর রবিবার আহমেদাবাদে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হওয়ার কথা থাকলেও এখন ১৪ অক্টোবর শনিবার একই ভেন্যুতে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল।

ফলে ১৪ অক্টোবর শনিবার দিল্লিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ম্যাচটি ২৪ ঘণ্টার জন্য স্থগিত করা হয়েছে এবং এখন ১৫ অক্টোবর রবিবার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

হায়দ্রাবাদে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়ে আরেকটি সমন্বয় আনা হয়েছে। মূলত বৃহস্পতিবার, 12 অক্টোবর ের জন্য পরিকল্পনা করা হয়েছিল, এই সূচিটি মঙ্গলবার, 10 অক্টোবর ে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। একইভাবে, লখনউয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি এক দিন পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে এবং প্রাথমিকভাবে নির্ধারিত শুক্রবার, ১৩ অক্টোবরের পরিবর্তে বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে।

একইভাবে ১৪ অক্টোবর চেন্নাইয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের ম্যাচটি ১৩ অক্টোবর শুক্রবার ের জন্য পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে। এই ম্যাচটি এখন দিবা-রাত্রির প্রতিযোগিতা হিসেবে খেলা হবে।

টুর্নামেন্টের প্রাথমিক পর্বে, ধর্মশালায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ম্যাচের সময় নিয়ে সামান্য পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগে দিবা-রাত্রির ম্যাচ হিসেবে ঘোষিত ম্যাচটি এখন স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হবে।

লিগ পর্ব শেষ হওয়ার সাথে সাথে তিনটি পরিবর্তন আসে। প্রাথমিকভাবে ১২ নভেম্বর রোববার অনুষ্ঠিতব্য ডাবল-হেডার ম্যাচগুলো এক দিন পিছিয়ে ১১ নভেম্বর শনিবার করা হয়েছে। পুনেতে সকাল সাড়ে ১০টায় অস্ট্রেলিয়া বনাম পাকিস্তান এবং দুপুর ২টায় কলকাতায় ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে ভারতের শেষ লিগ ম্যাচটি ১১ থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে। দিবা-রাত্রির এই লড়াই হবে বেঙ্গালুরুতে।

আগামী ৫ অক্টোবর আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে ২০১৯ সালের ফাইনালিস্ট ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বিশ্বকাপ। আগামী ১৯ নভেম্বর রোববার একই ভেন্যুতে ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।