আঙ্গুলের ইনজুরি থেকে সেরে ওঠা বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বৃহস্পতিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের ইনডোর প্রাঙ্গণের আউটার নেটে সংক্ষিপ্ত রান-আপ দিয়ে বোলিং শুরু করে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছেন।

প্রতিভাবান এই অলরাউন্ডার গত কয়েকদিন ধরে নিজের ফিটনেসের দিকে মনোনিবেশ করছেন এবং টাইগারদের স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে দেখা গেছে।

রিহ্যাবিলিটেশন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে সাকিবের নন-বোলিং তর্জনী আঙুলে ফ্র্যাকচার হলেও আজ সংক্ষিপ্ত রান-আপ নিয়ে বোলিং করেছেন তিনি।

তার পুনরুদ্ধারের অগ্রগতি উৎসাহব্যঞ্জক এবং টিম ম্যানেজমেন্ট আশাবাদী যে সাকিব আগামী মাসে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ফিরে আসার জন্য প্রস্তুত হবেন।

“আমি তার এক্স-রে পরীক্ষা করেছি এবং এটি ঠিক আছে বলে মনে হচ্ছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘আমরা আশাবাদী যে, আসন্ন ওয়ানডে সিরিজে সে অংশ নিতে পারবে।

গত মাসে চেমসফোর্ডে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আঙুলে চোট পেয়েছিলেন ৩৬ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।