২০২৩ সালের আইসিসি পুরুষ ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে ভারত। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) মঙ্গলবার এই ঘোষণা দিয়েছে, যা একটি উত্তেজনাপূর্ণ প্রচারণার মঞ্চ তৈরি করেছে।

আগামী ৮ অক্টোবর চেন্নাইয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচের ঠিক আগে কেএল রাহুল দলে জায়গা পেয়েছেন এবং অংশগ্রহণের জন্য ফিট বলে মনে করা হচ্ছে। রাহুল এর আগে আইপিএল মরসুমে উরুতে চোট পেয়েছিলেন তবে তারপর থেকে বেঙ্গালুরুর জাতীয় ক্রিকেট একাডেমিতে কঠোর অনুশীলন করছেন। আশা করা হচ্ছে, শ্রীলঙ্কায় এশিয়া কাপের শেষ পর্বে ভারতীয় সতীর্থদের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি। রাহুলের অন্তর্ভুক্তির ফলে সঞ্জু স্যামসন, তিলক ভার্মা এবং প্রসিদ্ধ কৃষ্ণের মতো উল্লেখযোগ্য বাদ পড়েছেন।

ব্যাটিং লাইনআপের নেতৃত্ব দিচ্ছেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং এতে শুভমান গিল, বিরাট কোহলি, শ্রেয়াস আইয়ার, সূর্যকুমার যাদব এবং ইশান কিষাণের প্রতিভা রয়েছে, যারা অতিরিক্ত উইকেটরক্ষক বিকল্প সরবরাহ করে। অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, অক্ষর প্যাটেল এবং শার্দুল ঠাকুরও তাদের জায়গা নিশ্চিত করেছেন।

জসপ্রীত বুমরাহ, যিনি ফিরে আসার পরে চোটের কোনও লক্ষণ দেখাননি, বোলিং বিভাগের নেতৃত্ব দেবেন, মোহাম্মদ শামি এবং মোহাম্মদ সিরাজ সম্ভবত পেস আক্রমণের মূল অংশ হতে পারেন। কুলদীপ যাদবকে দলের প্রাথমিক স্পিন বিকল্প হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে।

২০২৩ সালের আইসিসি পুরুষদের ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য ভারতের শক্তিশালী ১৫ সদস্যের স্কোয়াড এখানে দেওয়া হল:

রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শুভমান গিল, বিরাট কোহলি, শ্রেয়াস আইয়ার, কেএল রাহুল, ইশান কিষাণ, সূর্যকুমার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, অক্ষর প্যাটেল, শার্দুল ঠাকুর, জাসপ্রিত বুমরাহ, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ শামি, মোহাম্মদ সিরাজ

উল্লেখ্য, আইসিসির অনুমোদন সাপেক্ষে অংশগ্রহণকারী সব দলকে তাদের স্কোয়াডে কোনো পরিবর্তন আনার জন্য ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে।