বাংলাদেশের পেসার হাসান মাহমুদ উল্লেখ করেন যে আগামী মাসে অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় পেসারদের সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে বিভ্রান্ত না হওয়া গুরুত্বপূর্ণ হবে।”আমি মনে করি যখনই আমরা চাপের মধ্যে থাকি তখন আমরা আতঙ্কিত হই এবং আমাদের দক্ষতা বাস্তবায়ন করতে ভুলে যাই,” মাহমুদ শনিবার মিরপুরে একটি প্রশিক্ষণ সেশনের পরে গণমাধ্যমকে বলেন।অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশন সিম-ফ্রেন্ডলি হবে বলে আশা করা হচ্ছে, হাসান টাইগারদের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে পাঁচ সিমারের মধ্যে একজন, মার্কি ইভেন্টে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।বাংলাদেশের পেসাররা প্রায়শই সাম্প্রতিক সময়ে চাপের পরিস্থিতিতে তাদের ছন্দ হারিয়ে ফেলে, বিশেষ করে খেলার সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে। এশিয়া কাপের সময়ও তা স্পষ্ট হয় যায়, যেখানে টাইগাররা একটিও জয় নিশ্চিত করতে পারেনি।
মাহমুদের মতে, বেসিকগুলি সঠিকভাবে করা পেসারদের চাপের মধ্যেও তাদের সংযম বজায় রাখতে সহায়তা করতে পারে।

“মাহমুদ বলেন,আমি মনে করি আমাদের ধারাবাহিক থাকতে হবে এবং বেসিকগুলি সঠিকভাবে চালিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও, খেলার যে কোনও পরিস্থিতিতে আমাদের কার্যকর করতে হবে ।ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই ইনজুরির সঙ্গে মোকাবিলা করতে হয় মাহমুদকে এখনও নেটে বোলিং শুরু করার অপেক্ষায় রয়েছে। বাংলাদেশ দলের ফিজিও বায়েজেদুল ইসলামের মতে, বিশ্বকাপ শুরুর আগে এই পেসার পুরো প্রবাহে বল করবে বলে আশা করা হচ্ছে।২২ বছর বয়সী এই পেসার জুলাই-আগস্টে জিম্বাবুয়ে সফরের সময় বল হাতে প্রত্যাশিত ছিলো। তবে, গোড়ালির চোটের কারণে এই তরুণ এশিয়া কাপ থেকে বাদ পড়েন।