বিসিসিআইয়ের একজন কর্মকর্তা এখন থেকে বিদেশ সফরে দৈনিক ১০০০ মার্কিন ডলার ভাতা পাবেন এবং প্রথম শ্রেণীর বিমানে চলাচল করবেন। বিসিসিআই কর্মকর্তাদের ভাতা বৃদ্ধির বিষয়টি রবিবার এপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে উত্থাপন করা হয়েছিল, তবে গত অক্টোবরে কার্যকর হয়েছিল। সাত বছরেরও বেশি সময় পর দৈনিক ভাতা (দৈনিক ভাতা) সংশোধন করা হয়েছে। এর আগে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী বোর্ডের কর্মকর্তারা বিদেশ সফরে প্রতিদিন ৭৫০ মার্কিন ডলার পেতেন।

বিসিসিআইয়ের নথি অনুযায়ী, সভাপতি, সহ-সভাপতি, সেক্রেটারি, কোষাধ্যক্ষ এবং যুগ্ম-সম্পাদক সহ পদাধিকারীরা ভারতে সভা এবং বিজনেস ক্লাসভ্রমণের জন্য প্রতিদিন ৪০,০ মার্কিন ডলার পাবেন।

‘কাজের ভ্রমণের’ জন্য তাদের দৈনিক ৩০,০০০ টাকা দেওয়া হবে। তারা দেশীয় এবং বিদেশী উভয় ভ্রমণে একটি স্যুট রুমের জন্য ও বুক করতে পারে।

আইপিএল চেয়ারম্যানের ভাতাও কর্মকর্তাদের ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে।

ভারতীয় ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের দু’জন প্রতিনিধি সহ বিসিসিআই এপেক্স কাউন্সিলের সদস্যরা তাদের ত্রৈমাসিক সভার জন্য প্রতিদিন ৪০,০ মার্কিন ডলার এবং বিদেশ সফরের জন্য ৫০০ মার্কিন ডলার পাবেন। যাইহোক, এটি সাধারণত কর্মকর্তারা যারা কাজের জন্য বিদেশে ভ্রমণ করেন।

বোর্ড তার রাজ্য ইউনিটের সদস্যদের জন্য ভাতাও সংশোধন করেছে, যারা এখন অভ্যন্তরীণ ভ্রমণের সময় প্রতিদিন ৩০,০০০ টাকা এবং বিদেশ ভ্রমণের সময় ৪০০ মার্কিন ডলার পাবেন।

পুরুষ ও মহিলা উভয় জাতীয় দলের প্রধান কোচ নির্বাচন কারী ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটির তিন সদস্যকে সভার জন্য ৩.৫ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে। তাদের ক্ষেত্রে বিদেশ ভ্রমণের সম্ভাবনা কম, তবে তাদের প্রত্যেকে এর জন্য প্রতিদিন ৪০০ মার্কিন ডলারের অধিকারী হবেন।

উল্লেখ্য, বিসিসিআইয়ের পদটি সম্মানসূচক পদ। সিইও-র মতো ভাল বেতনের কর্মচারীরা বিদেশ সফরে দৈনিক ৬৫০ মার্কিন ডলার এবং ভারতে প্রতিদিন ১৫,০০০ টাকা ভাতা পাবেন।