বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,মালিকদের দ্বারা জমা দেওয়া এক্সপ্রেশন অফ ইন্টারেস্ট ডকুমেন্টগুলির বিস্তারিত মূল্যায়নের পরে, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে টি-টোয়েন্টি গভর্নিং কাউন্সিল টুর্নামেন্টের পরবর্তী তিনটি (নবম, দশম ও একাদশ) সংস্করণের জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকানা অধিকার নিশ্চিত করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য সাতটি দলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

চলতি বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে ছয়টি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে নিয়ে বিপিএলের অষ্টম ও শেষ আসর অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনালে ফরচুন বরিশালকে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো শিরোপা জিতে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। আগামী বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে সাতটি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে নিয়ে নবম আসর বসবে। আসলে এই সাতটি ফ্র্যাঞ্চাইজি পরবর্তী তিনটি সংস্করণে খেলবে, যার জন্য উইন্ডোটি আইসিসি দ্বারা সংরক্ষিত করা হয়।
কোম্পানি / দলগুলি এবং তাদের নিজ নিজ ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি হল:

সংগঠন/পার্টি/কোম্পানি ফ্র্যাঞ্চাইজ

1. ফরচুন বরিশাল স্পোর্টস লিমিটেড বরিশাল
2. মাইন্ডট্রি লিমিটেড খুলনা
3. প্রগতি গ্রীন রাইচ মিলস লিমিটেড ঢাক
৪. ফিউচার স্পোর্টস বাংলাদেশ লিমিটেড সিলেট
৫. টগি স্পোর্টস লিমিটেড (বসুন্ধরা গ্রুপ) রংপুর
6. ডেল্টা স্পোর্টস লিমিটেড। চট্টগ্রাম
৭. কুমিল্লা লিজেন্ডস লিমিটেড কুমিল্লা