পাকিস্তান ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল আজ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) অনুষ্ঠিত হবে।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এসসিজি) প্রথম সেমি-ফাইনালে মেন ইন গ্রিন নিউজিল্যান্ডকে পরাজিত করে ফাইনালে উঠলেও, তিনটি সিংহ ভারতকে দশ উইকেটে পরাজিত করে দ্বিতীয় স্থান দখল করে।

পাকিস্তানের প্রাক্তন পেসার শোয়েব আখতার বহু প্রতীক্ষিত ফাইনালের আগে বলেছিলেন যে ইংল্যান্ড বুঝতে পেরেছে যে, সেমি-ফাইনালের বিপরীতে, ফাইনালটি পার্কে হাঁটার মতো হবে না কারণ তারা ভারতের পরিবর্তে পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণের মুখোমুখি হবে।

ইংল্যান্ডের কাছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের সেমি-ফাইনালে হারের পর থেকেই আখতার তাঁদের নিয়ে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করে চলেছেন। ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান ফাইনালের আগে থেকেই ভারতীয় দলকে ব্যঙ্গ করার উপায় খুঁজে পেলেন রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস।

আখতার তার ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিওতে বলেন, “পার্থক্য (সেমি-ফাইনালের তুলনায় ফাইনালে) হল ইংল্যান্ড একটি ব্যাপক অবস্থানে রয়েছে; তাদের আত্মবিশ্বাস হবে আকাশছোঁয়া। ইংল্যান্ড জানে পাকিস্তানের বোলাররা ভারতের মতো নয়। জয়ের জন্য তাদের কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের সম্ভাবনা নিয়ে আখতার বলেন, ‘বাবর ও রিজওয়ানের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তাদের স্ট্রাইক রেট ছিল উল্লেখযোগ্য। মেলবোর্নের উইকেট তাদের একই রকম স্ট্রাইক রেট বজায় রাখার সুযোগ করে দেবে।

ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার জস বাটলার ও অ্যালেক্স হেলস সেমি-ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে জ্বলে উঠেন এবং যথাক্রমে ৮০ ও ৮৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। তারা চ্যাম্পিয়নশিপের খেলায় গতি বজায় রাখতে চায়। তবে, বৃষ্টির আশঙ্কা থাকায় পরিস্থিতি আরও জটিল হতে বাধ্য।

বুধবার প্রথম সেমিফাইনালে নিউ জিল্যান্ডকে সহজেই হারিয়ে পাকিস্তানের মনোবলও তুঙ্গে থাকবে। বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ান হারিয়ে যাওয়া ফর্ম ফিরে পেয়েছেন এবং এটি ধরে রাখতে চান।