পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি আসন্ন বিশ্বকাপ চলাকালীন আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে প্রস্তাবিত ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের সঙ্গে কথা বলার সময় শেঠি পরামর্শ দিয়েছিলেন যে ম্যাচটি যদি চেন্নাই বা কলকাতায় নির্ধারিত হত তবে এটি আরও অর্থবহ হত।

তিনি বলেন, ‘যখন আমি শুনলাম যে পাকিস্তানের ম্যাচ আহমেদাবাদে হবে, তখন আমি হেসে ছিলাম এবং নিজেকে বলেছিলাম- ‘আমরা যাতে ভারতে না আসি তা নিশ্চিত করার এটি একটি উপায়’। আমি বলতে চাইছি, আপনি যদি চেন্নাই বা কলকাতার কথা বলতেন, তাহলে হয়তো বোঝা যেত।

“আমি এর রাজনীতিতে যেতে চাই না, তবে অবশ্যই এর পিছনে একটি রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে বলে মনে হচ্ছে কারণ যদি কোনও শহর থাকে যেখানে আমাদের নিরাপত্তা সমস্যা থাকতে পারে তবে তা হ’ল আহমেদাবাদ। আর তাই আমি মনে করি, এ বিষয়ে যত কম কথা বলা হবে, ততই ভালো। এটি এমন একটি ধারণা তৈরি করেছিল যে এটি একটি লাল হেরিং যা আমাদের বলার পথে নিক্ষেপ করা হয়েছিল, ‘আরে, আমরা আহমেদাবাদে আপনার সাথে খেলতে যাচ্ছি এবং আপনি নজর রাখুন। আপনারা জানেন আহমেদাবাদ কে শাসন করছে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, বিসিসিআই আহমেদাবাদে হাই-প্রোফাইল ম্যাচটি আয়োজনের কথা ভাবছিল কারণ স্টেডিয়ামটির বিশাল ধারণক্ষমতা রয়েছে, যেখানে ১০০,০০০ দর্শক ধারণ ক্ষমতা থাকতে পারে।

তবে আহমেদাবাদে বহুল প্রত্যাশিত ম্যাচটি খেলা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পিসিবি।

জানা গেছে, শেঠি সম্প্রতি দুবাইয়ে আইসিসি অফিসে গিয়ে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। পাকিস্তানের ম্যাচগুলো এখন চারটি ভিন্ন ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে- আহমেদাবাদ, চেন্নাই, হায়দ্রাবাদ এবং বেঙ্গালুরু।

গ্র্যান্ড লঞ্চ ইভেন্টের মাধ্যমে চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ শেষ হওয়ার পরে বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশ করা হবে। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি টুর্নামেন্টের অন্যতম প্রত্যাশিত ম্যাচ হবে বলে আশা করা হচ্ছে এবং ভেন্যুর বিষয়টি কীভাবে সমাধান করা হয় তা দেখার বিষয়।