বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ড আগামী মাসে ঢাকা থেকে ভারতের বিরুদ্ধে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ সরিয়ে নেয়, যখন দেশটির বিরোধীরা একটি বিক্ষোভের পরিকল্পনা ঘোষণা করে। ২০১৫ সালের পর এই প্রথম সফরে আগামী সপ্তাহে বাংলাদেশে আসছে ভারত, যা শুরু হবে ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ দিয়ে, তিনটি ম্যাচই মূলত ঢাকায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

১০ই ডিসেম্বর সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটি এখন উপকূলীয় শহর চট্টগ্রামে স্থানান্তরিত করা হয়েছে, যার অর্থ এটি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) একটি সমাবেশ কে এড়িয়ে যাবে যা ঢাকার রাস্তায় লক্ষ লক্ষ লোককে নিয়ে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের পদত্যাগে বাধ্য করার লক্ষ্যে গত মাস থেকে সারা দেশে বেশ কয়েকটি বিশাল বিক্ষোভ করেছে বিএনপি।

তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামের প্রথমে একটি টেস্ট আয়োজনের কথা ছিল। আমরা মনে করি, ভেন্যুতেও ওয়ানডে হওয়া উচিত,” বুধবার এএফপিকে বলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অপারেশন্স প্রধান জালাল ইউনুস। এই বিক্ষোভের কারণে দেরিতে ভেন্যু পরিবর্তন হয়েছে কিনা সে বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানালেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিসিবি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে পত্রিকা নিউ এজ জানিছে, সমাবেশ এড়ানোর জন্য বোর্ড এই সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়া ১৪-১৮ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে ও ২২-২৬ ডিসেম্বর ঢাকায় দুটি টেস্ট খেলার জন্য ভারতকে স্বাগতিক করবে বাংলাদেশ।