কানাডার অধিনায়ক সাদ বিন জাফর নিউ ইয়র্কে ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে চাপে ফেলতে চান।

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হারের পর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানো দুই ম্যাচে এক জয় পেয়েছে কানাডা। জাফর আশা করছেন বিশ্বকাপের সুপার এইটের লড়াইয়ে টিকে থাকতে তাদের ছন্দ ধরে রাখবে।

অন্যদিকে ভারতের বিপক্ষে ১২০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যর্থ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হেরে দুই ম্যাচেই হেরেছে পাকিস্তান। মঙ্গলবার হেরে গেলে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাবে তারা।

ম্যাচের আগে সাদ বলেন, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের পর দল বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছে। “সবাই ইতিবাচক মেজাজে আছে। কানাডিয়ান প্রেসকে তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের আত্মবিশ্বাস দিয়েছে যে, আমরা যদি ভালো খেলি, তাহলে যে কোনো দলকে হারাতে পারি।

তিনি পাকিস্তানের শক্তির কথা স্বীকার করলেও তাদের সাম্প্রতিক বাজে ফর্মের কথা উল্লেখ করেছেন, যা কানাডা প্রাথমিক চাপ প্রয়োগ করে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা করছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা জানি পাকিস্তান শক্তিশালী ও অভিজ্ঞ দল, কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে তারা ভালো খেলছে না। “দুটি হার নিয়ে তারা চাপে আছে। আমরা যদি ভালো খেলি, শুরুর দিকে চাপ প্রয়োগ করতে পারি, তাহলে যেকোনো কিছুই ঘটতে পারে।

স্কোয়াড

পাকিস্তান:
বাবর আজম (অধিনায়ক), সাইম আইয়ুব, মোহাম্মদ রিজওয়ান, আজম খান, শাদাব খান, ফখর জামান, উসমান খান, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, আবরার আহমেদ, মোহাম্মদ আব্বাস আফ্রিদি, মোহাম্মদ আমির, নাসিম শাহ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ।

কানাডা:
সাদ বিন জাফর (অধিনায়ক), অ্যারন জনসন, ডিলন হেইলিগার, দিলপ্রীত বাজওয়া, হর্ষ ঠাকের, জেরেমি গর্ডন, জুনায়েদ সিদ্দিকি, কালিম সানা, কানওয়ারপাল তাথগুর, নবনীত ধালিওয়াল, নিকোলাস কীর্টন, পারগত সিং, রবীন্দ্রপাল সিং, রায়ানখান পাঠান, শ্রেয়াস মোভা।

রিজার্ভ:
তাজিন্দর সিং, আদিত্য বর্ধরাজন, আম্মার খালিদ, যতীন্দর মাথারু, পারভিন কুমার।