এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারের পর থেকেই পাকিস্তান ক্রিকেট দল ঘুরে দাঁড়িয়েছে। সুপার ৪ পর্বে পরপর দুটি জয়ের মাধ্যমে, পাকিস্তান শ্রীলঙ্কার সাথে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে। ব্যাটিং ও বোলিং বিভাগে বেশ কয়েকটি শীর্ষ স্থানীয় পারফরম্যান্স ছিল এবং তরুণ পেসার শাহনওয়াজ দাহানির পারফরম্যান্স অন্যতম আকর্ষণ ছিল। তিনি গ্রুপ এ-র দুটি ম্যাচে খেলেছেন, উভয় ক্ষেত্রেই ভাল ছিল। ভারতের বিপক্ষে তিনি ৪-০-২৯-০ এবং হংকংয়ের বিপক্ষে ২-১-৭-১ ব্যবধানের পরিসংখ্যান নিয়ে ফিরে আসেন। এরপর সাইড-স্ট্রেইনের কারণে সুপার ফোরের মঞ্চ মিস করেছেন তিনি।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন খেলোয়াড় সঞ্জয় মঞ্জরেকর তার বোলিংয়ের প্রশংসা করেছেন এবং আহত হওয়ার পর দাহানির সাথে একটি মজার সাক্ষাতের কথা বর্ণনা করেছেন।

স্টার স্পোর্টসে সঞ্জয় মঞ্জরেকর বলেছিলেন।’হ্যাঁ, সে একটা চরিত্র। সেদিন তিনি আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে আমি তার বোলিং উপভোগ করেছি কিনা। আমি বললাম, ‘আমি এটা ভালোবাসি। তুমি অসাধারণ বোলিং করেছ’। (তিনি উত্তর দিলেন) এরা মুক্তমনা ক্রিকেটার। পাকিস্তানে আমরা বছরের পর বছর ধরে এটি দেখেছি,”।

বুধবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে পাকিস্তানের ম্যাচে, ডানহাতি পেসার নাসিম শাহ শেষ ওভারে দুটি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন কারণ পাকিস্তান এশিয়া কাপের সুপার ৪ এর উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে ১৩০ রান তাড়া করে আফগানিস্তানকে এক উইকেটে পরাজিত করে ভারতকে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দেয়।

শেষ ওভার পর্যন্ত আফগানিস্তান দৃঢ়ভাবে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণে ছিল, যার ফলে পাকিস্তান ৯ উইকেটে ১১৮ রানে গুটিয়ে যায়। তবে, নাসিমের অন্য পরিকল্পনা ছিল কারণ তিনি ফজলহাক ফারুকিকে পরপর দুটি ছক্কা মেরেছিলেন যাতে আফগানিস্তান এবং ভারত উভয়কেই চূড়ান্ত স্থানের জন্য গণনার বাইরে পাঠানো যায়।

এতগুলো ম্যাচ থেকে দুটি করে জয় নিয়ে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা উভয়েই রোববার অনুষ্ঠিতব্য টুর্নামেন্টের ফাইনালে নিজেদের জায়গা পাকা করে নিয়েছে।