ইশ সোধি পাকিস্তানে, বিশেষত লাহোরে খেলার জন্য তার উত্সাহ প্রকাশ করেছিলেন, কারণ তার দাদী ১৯৪৭ সালের দেশভাগের আগে এখানে থাকতেন, যা তার জন্য সংবেদনশীল মূল্য বহন করে।

তিনি বলেন, ‘১৯৪৭ সালে অনেক পাকিস্তানি ভারত থেকে এখানে আসার জন্য পাড়ি জমান- আমার দাদী এর বিপরীত। দেশভাগের সময় তার পরিবার লাহোর থেকে ভারতে চলে আসে। এখানে আসাটা অবশ্যই বিশেষ কিছু। আমার বাবা এবং আমি প্রায়শই এখানে আসার কথা বলি এবং আপনি জানেন, লাহোরে বসবাসকারী কিছু হারিয়ে যাওয়া চাচাতো ভাইয়ের সাথে পুনরায় সংযোগ স্থাপন করি। দুর্ভাগ্যবশত, আমি তাদের এখানে দেখার সুযোগ পাব না”,।

তিনি বলেন, ‘ভারতের পাঞ্জাবে আমি যে জায়গায় জন্মেছি, তা খুব বেশি দূরে নয়। আবার এখানে আসতে পেরে বিশেষ লাগছে। তাছাড়া এখানকার মানুষের সঙ্গে পাঞ্জাবি ভাষায় কথা বলতে আমার ভালো লেগেছে।

৩০ বছর বয়সী এই পেসার কিউইদের দলে কব্জির স্পিন ফ্লেয়ার যোগ করবেন এবং তাদের জয়ের পথে নিয়ে যেতে পারেন।

আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে লাহোরে শুরু হতে যাওয়া পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ও পাঁচটি ওয়ানডে খেলবে নিউজিল্যান্ড দল।র