পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) আন্তর্জাতিক ক্রিকেট পরিচালকের পদ হারালেন জাকির খান।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সম্প্রতি শেষ হওয়া সীমিত ওভারের সিরিজের কারণে গত মাসে পিসিবি তার চুক্তির মেয়াদ এক মাস বাড়িয়েছিল। দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে পিসিবির সঙ্গে কাজ করা জাকির ের চুক্তির মেয়াদ ২০২৩ সালের ৩ এপ্রিল শেষ হওয়ার কথা ছিল।

৬০ বছর বয়সী এই ব্যক্তিকে এখন স্পেশাল প্রজেক্ট কনসালট্যান্ট হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। যাইহোক, এটি লক্ষণীয় যে, এই মুহুর্তে এমন কোনও প্রকল্প চলছে না।

জাকির প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু বলে মনে করা হয়। অতীতে যখন নাজাম শেঠি পিসিবি চেয়ারম্যান হয়েছিলেন, তখন জাকির সাইডলাইনে ছিলেন, কিন্তু এই সময়ে তিনি কোনও কাজ ছাড়াই নিয়মিত বেতন পেতেন। পরিস্থিতি নিয়ে ইমরান খানের সম্ভাব্য অসন্তুষ্টি এড়ানোর জন্য এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল।

এই মেয়াদেও একই ধরনের পরিস্থিতি অনুসরণ করা হবে। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ম্যানেজিংয়েও ব্যস্ত থাকবেন জাকির।

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) প্রধান উসমান ওয়াহলাকে পিসিবির আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সূত্র মতে, পিসিবিতে এখন দ্রুত পরিবর্তনের ঢেউ আসছে। চলতি মাসের শুরুর দিকে পিসিবি নাদিম খানকে বরখাস্ত করে, যিনি সম্প্রতি ডিরেক্টর হাই পারফরম্যান্স ের পদ থেকে সরিয়ে মহিলা উইংয়ে স্থানান্তরিত হন এবং তার বেতন প্রায় অর্ধেক হয়ে যায়।

নাদিম খানের পর হিট লিস্টে রয়েছেন আরেক পরিচালকও। তার জন্য বেশ কয়েকটি সুপারিশও করা হয়েছে, তবে তার দুর্বল ট্র্যাক রেকর্ড একটি রাস্তা ব্লক হিসাবে কাজ করছে। ৫০ শতাংশ বেতন কাটা হলেও বর্তমানে কয়েকজন শীর্ষ কর্মকর্তার অনুমোদন পাওয়ার চেষ্টায় ব্যস্ত তিনি। তবে তার বদলির কাজ শুরু হয়ে যাওয়ায় শিগগিরই তাকে বরখাস্ত করা হতে পারে।