ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ডেভন থমাসকে সাময়িক ভাবে নিষিদ্ধ করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

৩৩ বছর বয়সী থমাসের বিরুদ্ধে আইসিসি, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি), এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) এবং ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) নামে তিনটি নিয়ন্ত্রক সংস্থা একাধিকবার দুর্নীতি বিরোধী কোড লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে।

“ডেভন থমাসকে আইসিসি, এসএলসি, ইসিবি এবং সিপিএলের দুর্নীতি বিরোধী কোডের অধীনে সাতটি অভিযোগে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে,” আইসিসি জানিয়েছে।

আইসিসি আরও জানিয়েছে, থমাসের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের জবাব দেওয়ার জন্য ২০২৩ সালের ২৩ মে থেকে শুরু করে ১৪ দিনের সময় রয়েছে।

ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ (সিডব্লিউআই) এই প্রক্রিয়ার সাথে সরাসরি জড়িত না হওয়া সত্ত্বেও, সংস্থাটি ক্রিকেটে দুর্নীতির বিরুদ্ধে তার দৃঢ় অবস্থান প্রকাশ করেছে এবং খেলাধুলার অখণ্ডতা রক্ষার প্রচেষ্টায় আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিটকে (এসিইউ) পূর্ণ সমর্থন দিয়েছে।

“আইসিসি এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ডব্লিউআইপিএ) সহযোগিতায় সিডব্লিউআই খেলাধুলায় দুর্নীতি বিরোধী বিষয়ে আমাদের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের সচেতনতা বৃদ্ধি এবং শিক্ষিত করার জন্য নিবেদিত।

এদিকে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজের জন্য টমাসকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কোয়াডে রাখা হয়েছিল, যদিও অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার কারণে সিরিজে তার অংশগ্রহণ এখন প্রশ্নবিদ্ধ।