রবিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে গায়ানার প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে উগান্ডাকে ১৩৪ রানে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

১৭৪ রান তাড়া করতে নেমে উগান্ডা ১২ ওভারে মাত্র ৩৯ রানে অলআউট হয়ে যায়, যা পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যৌথভাবে সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহ।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বনিম্ন স্কোর:

  • ৩৯ উগান্ডা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ (গায়ানা, ২০২৪)
  • ৩৯ নেদারল্যান্ডস বনাম শ্রীলঙ্কা (চট্টগ্রাম, ২০১৪)
  • ৪৪ নেদারল্যান্ডস বনাম শ্রীলঙ্কা (শারজাহ, ২০২১)
  • ৫৫ ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম ইংল্যান্ড (দুবাই, ২০২১)
  • ৫৮ বনাম আফগানিস্তান (গায়ানা, ২০২৪)

অসাধারণ বোলিং করে চার ওভারে মাত্র ১১ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন আকিল হোসেন।

“আমার এটা দরকার ছিল। ম্যাচ শেষে হোসেইন বলেন, ‘আমার মনে হচ্ছিল বল ভালো আসছে কিন্তু আমি পুরস্কার পাচ্ছিলাম না। “এটা অনেক পরিশ্রমের কাজ। আপনাকে এক ধাপ এগিয়ে থাকতে হবে এবং ভালভাবে পরিকল্পনা করতে হবে। দলের যেখানে প্রয়োজন সেখানেই বোলিং করতে পেরে আমি খুশি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম বোলার হিসেবে পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেওয়ার কীর্তি গড়েন হোসেইন। আলজারি জোসেফও ৩ ওভারে ৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন।

উগান্ডার হয়ে ২০ বলে অপরাজিত ১৩ রান করে দুই অঙ্কে পৌঁছান কেবল জুমা মিয়াগি।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে ১৭৩-৫ তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জনসন চার্লস ৪২ বলে সর্বোচ্চ ৪৪ ও আন্দ্রে রাসেল ১৭ বলে দ্রুত ৩০ রান যোগ করেন। উগান্ডার অধিনায়ক ব্রায়ান মাসাবা চার ওভারে ৩১ রানে ২ উইকেট নেন।