চেন্নাই সুপার কিংস তাদের আগের ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের কাছে প্রায় তিন রানে পরাজিত হয়েছিল। ১৭৬ রান তাড়া করতে নেমে সিএসকে-র শেষ ওভারে দরকার ছিল ২১ রান, যখন অভিজ্ঞ ফিনিশার মহেন্দ্র সিং ধোনি স্ট্রাইকে থাকা সত্ত্বেও পেসার সন্দীপ শর্মা তা রক্ষা করেন। আগামী সোমবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিপক্ষে মাঠে নামবে চারবারের চ্যাম্পিয়নরা। চোটের কারণে দীপক চাহারের অনুপস্থিতি সামলাতে থাকা সিএসকে আগের ম্যাচে তাদের পেসার সিসান্দা মাগালাও চোট পেয়েছিলেন।

এ ছাড়া টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই হাঁটুতে চোট পেলেও এখন পর্যন্ত চারটি ম্যাচই খেলেছেন তিনি।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে ঘরের মাঠে রাজস্থান রয়্যালসের কাছে হারের পর ধোনিকে কিছুটা কাঁপতে দেখা গিয়েছিল, আরসিবি ম্যাচে তার প্রাপ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল।

যদিও ধোনি আট নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছেন, তবুও তিনি প্রভাব ফেলতে সক্ষম হয়েছেন এবং রয়্যালসের বিরুদ্ধে শেষ বলের সমাপ্তিতে তার দলকে প্রায় লাইনের ওপরে নিয়ে গেছেন।

ওপেনার ঋতুরাজ গাইকওয়ার্ড এবং ডেভন কনওয়ে তাদের দায়িত্ব পালন করছেন এবং অজিঙ্কা রাহানেও তিন নম্বরে ব্যাট করার সময় নিজেকে নতুন করে সাজিয়েছেন বলে মনে হচ্ছে তবে মিডল অর্ডারকে আরও বেশি কিছু করতে হবে।

আম্বাতি রাইডু, শিবম দুবে এবং রবীন্দ্র জাদেজার মতো ক্রিকেটাররা এগিয়ে যেতে পারেননি। দুবে বিশেষত তার চারটি ইনিংসেই সাবলীলতা অর্জনের জন্য লড়াই করেছেন এবং এটি তার ১১৮.৮৪ স্ট্রাইক রেটে প্রতিফলিত হয়।

সিএসকে একাদশ: ঋতুরাজ গাইকওয়াড, ডেভন কনওয়ে, আজিঙ্কা রাহানে, মঈন আলি, আম্বাতি রাইডু, শিবম দুবে, রবীন্দ্র জাদেজা, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস/ মাথিশ পাথিরানা, মহেশ থিকসানা, তুষার দেশপান্ডে।