[fusion_builder_container type=”flex” hundred_percent=”no” hundred_percent_height=”no” min_height_medium=”” min_height_small=”” min_height=”” hundred_percent_height_scroll=”no” align_content=”stretch” flex_align_items=”flex-start” flex_justify_content=”flex-start” flex_column_spacing=”” hundred_percent_height_center_content=”yes” equal_height_columns=”no” container_tag=”div” menu_anchor=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” status=”published” publish_date=”” class=”” id=”” spacing_medium=”” margin_top_medium=”” margin_bottom_medium=”” spacing_small=”” margin_top_small=”” margin_bottom_small=”” margin_top=”” margin_bottom=”” padding_dimensions_medium=”” padding_top_medium=”” padding_right_medium=”” padding_bottom_medium=”” padding_left_medium=”” padding_dimensions_small=”” padding_top_small=”” padding_right_small=”” padding_bottom_small=”” padding_left_small=”” padding_top=”” padding_right=”” padding_bottom=”” padding_left=”” link_color=”” link_hover_color=”” border_sizes=”” border_sizes_top=”” border_sizes_right=”” border_sizes_bottom=”” border_sizes_left=”” border_color=”” border_style=”solid” box_shadow=”no” box_shadow_vertical=”” box_shadow_horizontal=”” box_shadow_blur=”0″ box_shadow_spread=”0″ box_shadow_color=”” box_shadow_style=”” z_index=”” overflow=”” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ background_color=”” background_image=”” skip_lazy_load=”” background_position=”center center” background_repeat=”no-repeat” fade=”no” background_parallax=”none” enable_mobile=”no” parallax_speed=”0.3″ background_blend_mode=”none” video_mp4=”” video_webm=”” video_ogv=”” video_url=”” video_aspect_ratio=”16:9″ video_loop=”yes” video_mute=”yes” video_preview_image=”” render_logics=”” absolute=”off” absolute_devices=”small,medium,large” sticky=”off” sticky_devices=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_background_color=”” sticky_height=”” sticky_offset=”” sticky_transition_offset=”0″ scroll_offset=”0″ animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″][fusion_builder_row][fusion_builder_column type=”1_1″ layout=”1_1″ align_self=”auto” content_layout=”column” align_content=”flex-start” valign_content=”flex-start” content_wrap=”wrap” spacing=”” center_content=”no” link=”” target=”_self” link_description=”” min_height=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” sticky_display=”normal,sticky” class=”” id=”” type_medium=”” type_small=”” order_medium=”0″ order_small=”0″ dimension_spacing_medium=”” dimension_spacing_small=”” dimension_spacing=”” dimension_margin_medium=”” dimension_margin_small=”” margin_top=”” margin_bottom=”” padding_medium=”” padding_small=”” padding_top=”” padding_right=”” padding_bottom=”” padding_left=”” hover_type=”none” border_sizes=”” border_color=”” border_style=”solid” border_radius=”” box_shadow=”no” dimension_box_shadow=”” box_shadow_blur=”0″ box_shadow_spread=”0″ box_shadow_color=”” box_shadow_style=”” overflow=”” background_type=”single” gradient_start_color=”” gradient_end_color=”” gradient_start_position=”0″ gradient_end_position=”100″ gradient_type=”linear” radial_direction=”center center” linear_angle=”180″ background_color=”” background_image=”” background_image_id=”” background_position=”left top” background_repeat=”no-repeat” background_blend_mode=”none” render_logics=”” filter_type=”regular” filter_hue=”0″ filter_saturation=”100″ filter_brightness=”100″ filter_contrast=”100″ filter_invert=”0″ filter_sepia=”0″ filter_opacity=”100″ filter_blur=”0″ filter_hue_hover=”0″ filter_saturation_hover=”100″ filter_brightness_hover=”100″ filter_contrast_hover=”100″ filter_invert_hover=”0″ filter_sepia_hover=”0″ filter_opacity_hover=”100″ filter_blur_hover=”0″ animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=”” last=”true” border_position=”all” first=”true”][fusion_content_boxes layout=”icon-with-title” columns=”1″ link_type=”” button_span=”” link_area=”” link_target=”” icon_align=”left” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_delay=”” animation_offset=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” class=”” id=”” title_size=”” heading_size=”2″ title_color=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” body_color=”” backgroundcolor=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”no” iconcolor=”” icon_circle=”” icon_circle_radius=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” icon_size=”” icon_hover_type=”” hover_accent_color=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” margin_top=”” margin_bottom=””][fusion_content_box title=”আজকের ম্যাচ সম্পূর্ণ বিবরণ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]আইপিএল ২০২৩-এর আরেকটি বড় লড়াইয়ের সাক্ষী হতে প্রস্তুত ক্রিকেটপ্রেমীরা। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ২৫তম ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ বনাম মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স মুখোমুখি হবে ১৮ এপ্রিল, মঙ্গলবার হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। আমরা আইপিএল টি২০ ২০২৩-এর আজকের ম্যাচের নিরাপদ, নির্ভুল এবং ১০০% সুরক্ষিত ভবিষ্যদ্বাণী পোস্ট করছি, যেখানে লাইভ আইপিএল স্কোর এবং ভবিষ্যদ্বাণীসহ বল-বাই-বল আপডেট রয়েছে।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”আইপিএল ২০২৩ ২৫ তম ম্যাচ পর্যালোচনা” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ আইপিএলের এই সংস্করণে ভাল শুরু করতে পারেনি এবং পরপর দুটি ম্যাচ হেরেছিল তবে এর পরে তারা শক্তিশালীভাবে ঘুরে দাঁড়ায় এবং তাদের সাম্প্রতিক দুটি ম্যাচ জিতেছে। রাজস্থান রয়্যালস এবং লখনউ সুপার জায়ান্টদের কাছে হারলেও পাঞ্জাব কিংস ও কলকাতা নাইট রাইডার্সকে হারিয়েছে তারা। এখন তারা চারটি ম্যাচ খেলে দুটি জয় ও একই হার নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তলানি থেকে দ্বিতীয় অবস্থান ধরে রেখেছে। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অবস্থাও সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের মতোই। তারা চারটি ম্যাচ খেলেছে এবং দুটি জয় পেয়েছে। দুই ম্যাচ হেরে পয়েন্ট টেবিলের অষ্টম স্থানে রয়েছে তারা। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর এবং চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে দুটি উদ্বোধনী ম্যাচে হেরে গেলেও দিল্লি ক্যাপিটালস ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে জয় পেয়েছে তারা।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ রিভিউ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ প্রথম দুই ম্যাচ হেরে জয়ের ধারায় ফিরেছে। এই দলের ব্যাটিং অর্ডার ভাল পারফর্ম করতে শুরু করেছিল এবং তাদের প্রধান খেলোয়াড়রা ভাল ফর্মে ফিরেছে। মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে সঙ্গে নিয়ে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের ব্যাটিং ইনিংসের উদ্বোধন করছেন হ্যারি ব্রুক। হ্যারি ব্রুক ভাল ফর্মে আছেন এবং তিনি আইপিএলে তার প্রথম সেঞ্চুরি করেছিলেন। রাহুল ত্রিপাঠি ফর্ম নিয়ে লড়াই করছেন তবে অধিনায়ক এইডেন মার্করাম অবশেষে ভাল ফর্মে রয়েছেন এবং তিনি আইপিএলের এই সংস্করণে তার প্রথম ফিফটি করেছিলেন। অভিষেক শর্মাও প্রায় সব ম্যাচেই ভালো খেলেছেন।আগের ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের ব্যাটিং অর্ডার যেভাবে পারফর্ম করেছিল তা অসাধারণ ছিল। তারা তাদের ২০ ওভারের ইনিংসে মোট ২২৮ রান করেছিল এবং তাদের দলের প্রায় প্রতিটি ব্যাটসম্যানবোর্ডে কিছু রান রেখেছিল। হ্যারি ব্রুক ১২ টি বাউন্ডারি এবং তিনটি বিশাল ছক্কার সাহায্যে ৫৫ বলে ১০০ রান নিয়ে তাদের দলের সবচেয়ে সফল এবং সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন। ২০তম ওভার পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন তিনি।

আগের ম্যাচে ব্যাট হাতেও অসাধারণ পারফরমেন্স করেছিলেন এইডেন মার্করাম। তিনি ২৬ বলের মুখোমুখি হয়ে ৫০ রান করেছিলেন এবং দুটি বাউন্ডারি এবং পাঁচটি বিশাল ছক্কা মেরেছিলেন। অভিষেক শর্মা অন্য ব্যাটসম্যান ছিলেন যিনি বোর্ডে কিছু রান রেখেছিলেন। মাত্র ১৭ বলে তিনটি বাউন্ডারি ও দুটি বিশাল ছক্কার সাহায্যে ৩২ রান করেন তিনি।১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন হেনরিচ ক্লাসেন। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বোলিং ইউনিট শক্তিশালী এবং তাদের ভুবনেশ্বর কুমার, মার্কো জ্যানসেন, টি নটরাজন, উমরান মালিক, মায়াঙ্ক মার্কান্ডে এবং ওয়াশিংটন সুন্দরের মতো অভিজ্ঞ বোলার রয়েছে তবে তারা আগের ম্যাচে সেরা পারফরম্যান্স দিতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছিল। তারা ২২৪ রানের লক্ষ্য রক্ষা করলেও ২০ ওভারে ২০৫ রান তোলে। মায়াঙ্ক মার্কান্ডে ২৭ রানের বিপরীতে চার ওভারে দুটি উইকেট নিয়ে তাদের দলের সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন। মার্কো জ্যানসেনও দুটি উইকেট নিয়েছিলেন কিন্তু তিনি প্রচুর রান করেছিলেন। চার ওভারে ৩৭ রান তুলে ছিলেন তিনি। ভুবনেশ্বর কুমার ২৯ রানের বিপরীতে চার ওভারে একটি উইকেট নিয়ে একজন অর্থনৈতিক বোলার হিসাবে প্রমাণিত হন। উমরান মালিক একটি উইকেট নিলেও তিনি সবচেয়ে ব্যয়বহুল বোলার ছিলেন কারণ তিনি মাত্র দুই ওভারে ৩৬ রান তুলেছিলেন।টি নটরাজন অন্য বোলার ছিলেন যার নামে একটি উইকেট ছিল তবে তিনি প্রচুর রানও ফাঁস করেছিলেন। মাত্র চার ওভারে ৫৪ রান তুলে নেন তিনি। ওয়াশিংটন সুন্দর দুই ওভারে ২০ রান তুলে কোনো উইকেট নিতে ব্যর্থ হন।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স রিভিউ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স শুরুতে দুটি ম্যাচ হারলেও এখন তারা জয়ের পথে রয়েছে এবং সম্প্রতি তারা কলকাতা নাইট রাইডার্সকে দুর্দান্ত ব্যবধানে হারিয়েছে। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলিং ইউনিট এই টুর্নামেন্টের জন্য খুব বেশি শক্তিশালী নয় এবং এই কারণেই তারা এই টুর্নামেন্টের প্রায় প্রতিটি ম্যাচে লড়াই করেছে। তাদের স্কোয়াডে কোনো অভিজ্ঞ বোলার নেই। অর্জুন তেন্ডুলকর, ক্যামেরন গ্রিন, ডুয়ান জ্যানসেন, পীযূষ চাওলা, হৃতিক শোকিন এবং রাইলি মেরেডিথ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের শীর্ষস্থানীয় বোলার এবং তারা কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে তাদের সাম্প্রতিক তম ম্যাচে পারফর্ম করতে পারেনি এবং ২০ ওভারে ১৮৫ রান তুলেছিল।৩৪ রানের বিপরীতে চার ওভারে দুই উইকেট নিয়ে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন হৃতিক শৌকিন। পীযূষ চাওলা মাত্র ১৯ রানের বিনিময়ে চার ওভারে একটি উইকেট নিয়ে তাদের দলের সবচেয়ে লাভজনক বোলার হিসাবে প্রমাণিত হন। ক্যামেরন গ্রিনও দুই ওভারে ২০ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন। ডুয়ান জ্যানসেন নামে একটি উইকেট নিয়ে অন্য বোলার ছিলেন তবে তিনি প্রচুর রান ফাঁস করেছিলেন। চার ওভারে ৫৩ রান দিয়ে চার্জ পান তিনি।

৪১ রানের বিপরীতে চার ওভারে একটি উইকেট নেন রাইলি মেরেডিথ। তিন বছর অপেক্ষার পর অবশেষে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের প্রথম একাদশে সুযোগ পেলেন অর্জুন টেন্ডুলকার।মনে রাখবেন যে তিনি আগের তিনটি সংস্করণে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ফ্র্যাঞ্চাইজির অংশ ছিলেন এবং প্রথমবারের মতো তিনি তার দলের হয়ে খেলেছিলেন। তাকে বোলিংয়ের জন্য দুই ওভার সময় দেওয়া হয়েছিল যেখানে তিনি ১৭ রান করেছিলেন এবং কোনও উইকেট নিতে ব্যর্থ হয়েছিলেন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ব্যাটিং অর্ডার ভালো অবস্থায় ফিরে ছে এবং এটি এই দলের ভক্তদের জন্য বড় খবর। তারা এর আগে একটি ম্যাচে ভাল ছিল এবং তাদের সাম্প্রতিক তম ম্যাচেও ভাল পারফর্ম করেছিল। এই দলের টপ ও মিডল ব্যাটিং অর্ডার এখন ভালো পারফর্ম করছে। মাত্র ১৭.৩ ওভারে পাঁচ উইকেট হাতে রেখে ১৮৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করে তারা। তাদের দলের প্রায় প্রতিটি ব্যাটসম্যানই বোর্ডে কিছু রান তোলেন। ইশান কিষাণ তাদের পক্ষে সবচেয়ে সফল এবং সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন। মাত্র ২৫ বলে পাঁচটি বাউন্ডারি ও একই বিশাল ছক্কার সাহায্যে ৫৮ রান করেন তিনি। সূর্যকুমার যাদব আগের ম্যাচগুলিতে লড়াই করছিলেন তবে তিনি সাম্প্রতিক তম ম্যাচেও ভাল পারফরম্যান্স করেছিলেন এবং ৪৩ রান করেছিলেন।তিনি ২৫ বলের মুখোমুখি হন এবং তার ইনিংসের সময় চারটি বাউন্ডারি এবং তিনটি বিশাল ছক্কা মেরেছিলেন। তিলক ভার্মা ৩০ রান করেন এবং টিম ডেভিড ২০ রান করে অপরাজিত থাকেন।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ বনাম মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স হেড-টু-হেড ম্যাচ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ১৯ টি ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হয়েছিল যেখানে তারা ৯ টি ম্যাচ জিতেছিল এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ানস সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে ১০ টি ম্যাচ জিতেছিল।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”সাম্প্রতিক পাঁচ ম্যাচে উভয় দলের পারফরম্যান্স” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ সাম্প্রতিক পাঁচ ম্যাচের মধ্যে দুটিতে জিতেছিল এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সও আগের পাঁচ ম্যাচের মধ্যে দুটিতে জিতেছিল।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ম্যাচের পূর্বাভাসে প্রিয় দল” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ একটি শক্তিশালী এবং সুষম দল এবং একটি শক্তিশালী ব্যাটিং এবং বোলিং বিভাগ রয়েছে যা ভাল ফর্মে রয়েছে। এই দলের ব্যাটিং ও বোলিং স্কোয়াড অন্তত কাগজে-কলমে অনেক বেশি শক্তিশালী। আজকের ভবিষ্যদ্বাণী অনুযায়ী সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদই ফেভারিট দল যারা এই ম্যাচ জিতবে। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে এই ম্যাচ জেতার জন্য ফেভারিট দল করে তোলে এমন অনেক গুলি কারণ রয়েছে। কয়েকটি মূল কারণ নিম্নরূপ উল্লেখ করা হয়েছে:

  • দুই দলই বোলিং বিভাগে দুর্বল।
  • সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের ব্যাটিং অর্ডারও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের চেয়ে শক্তিশালী।
  • মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের প্রধান ব্যাটসম্যানরা ভালো ফর্মে ফিরেছে।
  • মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স একটি শক্তিশালী এবং অভিজ্ঞ দল।
  • বোলিংয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের চেয়ে ধনী সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”উভয় দলের জন্য ম্যাচে জয়ের সম্ভাবনা” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ সামগ্রিকভাবে একটি শক্তিশালী দল যখন আমরা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সাথে তুলনা করি। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের সেরা খেলোয়াড় আছে তাদের। এই দলের ব্যাটিং অর্ডারও শক্তিশালী এবং টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের কিছু সুপরিচিত হিটার এই দলের স্কোয়াডের অংশ হওয়ায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের আজকের ম্যাচে জয়ের সম্ভাবনা বেড়ে গেছে। আজকের ক্রিকেট ম্যাচের ভবিষ্যদ্বাণীতে কে জিতবে এবং আজকের ক্রিকেট ম্যাচটি কে জিতবে তার সমীকরণটি নীচে উল্লেখ করা হয়েছে।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের জয়ের সম্ভাবনা ৫২ শতাংশ।
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জয়ের সম্ভাবনা ৪৮ শতাংশ।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ম্যাচে টসের পূর্বাভাস” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]আইপিএল ২০২৩-এর প্রতিটি ম্যাচের ফলাফলে টস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে, যেমনটা আমরা এই টুর্নামেন্টের আগের সংস্করণে দেখেছি। টসের ভবিষ্যদ্বাণী অনুযায়ী, যে দল টসে জিতবে তারা প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেবে কারণ আইপিএলের সাম্প্রতিক তম ম্যাচগুলিতে ডিফেন্ডিং করা কঠিন ছিল। মনে রাখতে হবে, নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে ৫২ শতাংশ ম্যাচ জিতেছে দলগুলো।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”পিচ রিপোর্ট” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে আইপিএল-২০-এর ২৫তম ম্যাচ। এই ভেন্যুর পিচটি এমন একটি পিচ হিসাবে পরিচিত যা সাধারণত সমতল এবং ব্যাটিংয়ের জন্য ভাল। পিচটি ভাল বাউন্স এবং ক্যারি সরবরাহ করে, এটি স্ট্রোক খেলার জন্য একটি আদর্শ পৃষ্ঠ তৈরি করে। আউটফিল্ডটিও ভালভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়, যা দ্রুত স্কোরিং এবং ভাল ফিল্ডিংয়ের সুবিধা দেয়। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে, রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের পিচটি খেলার অগ্রগতির সাথে সাথে স্পিন বোলারদের সহায়তা করার জন্য পরিচিত। এর অর্থ হল যে স্পিনাররা ম্যাচের পরবর্তী পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”আবহাওয়ার প্রতিবেদন” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]হায়দ্রাবাদের আবহাওয়ার পূর্বাভাস এই ক্রিকেট ম্যাচে ভাল। এপ্রিল মাসে হায়দ্রাবাদ সাধারণত দিনের গড় তাপমাত্রা ৩০-৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস (৮৬-৯৭ ডিগ্রি ফারেনহাইট) এবং রাতের তাপমাত্রা ২১-২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস (৭০-৭৯ ডিগ্রি ফারেনহাইট) পর্যন্ত থাকে। আর্দ্রতার মাত্রাও সাধারণত বেশি থাকে, গড় আপেক্ষিক আর্দ্রতা প্রায় ৪০-৫০%।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ বনাম মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স প্লেয়িং ১১” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ: হ্যারি ব্রুক, মায়াঙ্ক আগরওয়াল, রাহুল ত্রিপাঠি, এইডেন মার্করাম (অধিনায়ক), অভিষেক শর্মা, হেনরিচ ক্লাসেন ( উইকেটরক্ষক), মার্কো ইয়ানসেন, ভুবনেশ্বর কুমার, মায়াঙ্ক মার্কান্ডে, উমরান মালিক, টি নটরাজন।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স: ইশান কিষাণ (উইকেটরক্ষক), ক্যামেরন গ্রিন, তিলক ভার্মা, সূর্যকুমার যাদব (অধিনায়ক), টিম ডেভিড, নেহাল ওয়াধেরা, অর্জুন টেন্ডুলকার, হৃতিক শোকিন, পীযূষ চাওলা, দুয়ান জ্যানসেন, রাইলি মেরেডিথ।

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”ম্যাচের সময় ও তারিখ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

  • তারিখ: মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৩
  • সময়: ০২:০০ পি. এম, জি. এম. টি / ০৭:৩০ পি. এম, স্থানীয় / ০৭:৩০ পি এম, আন্তর্জাতিক

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”স্থান বিবরণ” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

  • স্টেডিয়াম: রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম
  • অবস্থান: হায়দ্রাবাদ, ভারত
  • খোলা হয়েছে: ২০০৪
  • ক্যাপাসিটি: ৩৮০০০
  • পরিচিত: ভিসাকা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম গ্রাউন্ড
  • শেষ: প্যাভিলিয়ন শেষ, নর্থ এন্ড
  • টাইম জোন: ইউটিসি +০৫:30
  • হোম: হায়দ্রাবাদ (ভারত), সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ
  • ফ্লাডলাইট: হ্যাঁ

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”টি-টোয়েন্টিতে ভেন্যু স্কোরিং প্যাট্রেন” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

  • সর্বমোট ম্যাচ: ২টি
  • ম্যাচ জয়ী প্রথম বোলিং: ২
  • গড় ১ম ইন স্কোর: ১৯৬
  • গড় ২য় ইনস স্কোর: ১৯৮
  • সর্বাধিক রেকর্ড করা মোট: ২০৯/৪ (১৮.৪ ওভার) ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
  • সর্বোচ্চ রান তাড়া: ২০৯/৪ (১৮.৪ ওভার) ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ

[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ স্কোয়াড” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]আদিল রশিদ, আকিল হোসেন, গ্লেন ফিলিপস, সমর্থ ব্যাস, আনমোলপ্রীত সিং, মায়াঙ্ক ডাগার, উপেন্দ্র যাদব, কার্তিক ত্যাগী, সানভির সিং, ফজলহাক ফারুকি, আব্দুল সামাদ, নীতীশ রেড্ডি, বিভ্রন্ত শর্মা, ওয়াশিংটন সুন্দর, হ্যারি ব্রুক, মায়াঙ্ক আগরওয়াল, রাহুল ত্রিপাঠি, এইডেন মার্করাম (অধিনায়ক), অভিষেক শর্মা, হেনরিচ ক্লাসেন (উইকেটরক্ষক), মার্কো জানসেন, ভুবনেশ্বর কুমার, মায়াঙ্ক মার্কান্ডে, উমরান মালিক, টি নটরাজন।[/fusion_content_box][fusion_content_box title=”মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স স্কোয়াড” backgroundcolor=”” hue=”” saturation=”” lightness=”” alpha=”” icon=”” iconflip=”” iconrotate=”” iconspin=”” iconcolor=”” circlecolor=”” circlebordersize=”” circlebordercolor=”” outercirclebordersize=”” outercirclebordercolor=”” image=”” image_id=”” image_max_width=”” link=”” linktext=”Read More” link_target=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]রোহিত শর্মা, সন্দীপ ওয়ারিয়র, জোফরা আর্চার, বিষ্ণু বিনোদ, রমনদীপ সিং, শামস মুলানি, কুমার কার্তিকেয়, আকাশ মাধওয়াল, ত্রিস্তান স্টাবস, দেওয়াল্ড ব্রেভিস, রাঘব গোয়েল, আরশাদ খান, জেসন বেহরেনডর্ফ, ইশান কিষাণ (উইকেটরক্ষক), ক্যামেরন গ্রিন, তিলক ভার্মা, সূর্যকুমার যাদব (অধিনায়ক), টিম ডেভিড, নেহাল ওয়াধেরা, অর্জুন টেন্ডুলকার, হৃতিক শোকিন, পীযূষ চাওলা, দুয়ান জানসেন, রিলে মেরেডিথ।[/fusion_content_box][/fusion_content_boxes][/fusion_builder_column][/fusion_builder_row][/fusion_builder_container]